নৌকা প্রার্থীর সমর্থককে ব্যাপক মারধর

আপডেট: 07:58:56 08/01/2021



img

নড়াইল প্রতিনিধি: নড়াইলের কালিয়া পৌরসভা নির্বাচনে নৌকা প্রতীকের সমর্থক স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা আব্দুর রহিম সরদারকে (৩৭) বেধড়ক পিটিয়েছে বিদ্রোহী প্রার্থী মুশফিকুর রহমান লিটনের সমর্থকরা।
গুরুতর আহত রহিম সরদারকে কালিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। এ ব্যাপারে আব্দুর রহিম সরদার নিজেই বাদী হয়ে ১৭জনকে আসামি করে মামলা দায়ের করেছেন। সন্ধ্যায় কালিয়া বাজারে কলেজ রোডে রাজুর কসমেটিক্সের দোকানের সামনে এ ঘটনা ঘটে।
স্থানীয়রা জানায়, উপজেলার বেন্দা গ্রামের আব্দুর মালেক সরদারের ছেলে আব্দুর রহিম সরদারকে বিদ্রোহী মেয়র প্রার্থী মুশফিকুর রহমান লিটনের সমর্থক সাইফুল্লাহ বিশ্বাস (৩২),মহিবুল্লাহ বিশ্বাস, জামাল বিশ্বাস (২৮), কুবাদ শেখ (৩২), সালমান মোল্যা (২৫), জাকারিয়া ফকির, রানা শেখ (৩২),আব্দুল্লাহ শেখ (৫০), স্বপন দাই (৪৫), লিটন চৌধুরী, লিটু শেখ (৪৫), তরিকুল ইসলাম (৫৮), পিল্টু শেখ (৩৫), অনিক শেখ, ইমদাদ শেখ (৪০), রামিম হাওলাদার (৩০), ফসিয়ার শেখসহ (৫০) ৩০/৩৫জন সন্ত্রাসীরা আগ্নেয়াস্ত্র ও দেশীয় অস্ত্রসহ কালিয়া বাজারে দোকানের সামনে গিয়ে নির্বাচনে কোথায় ভোট দেবে প্রশ্ন করে।
আব্দুর রহিম সরদার জানান, তিনি নৌকার লোক, নৌকায় ভোট দেবেন। এ কথা শুনেই ভোট দেয়ার স্বাদ মিটায় দে বলে তাকে মারধর শুরু করে। লোহার রড ও কাটা বন্দুক দিয়ে এলোপাতাড়ি পিটিয়ে রক্তান্ত জখম করে।
আব্দুর রহিম অজ্ঞান হয়ে গেলে তার কাছে থাকা টাকা ও সোনার অলঙ্কার ছিনিয়ে নেয় হামলাকারীরা।
পরে তাকে হাসপাতালে ভর্তি করেন দলের নেতাকর্মীরা।
মেয়র পদপ্রার্থী মো.ওয়াহিদুজ্জামান হীরা বলেন,‘আব্দুর রহিমকে চিকিৎসার পাশাপাশি মামলার প্রস্তুতি নেয়া হচ্ছে। বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করে নৌকার বিজয়কে কেউ ঠেকাতে পারবে না।’
কালিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) শেখ কনি মিয়া বলেন, ‘বিষয়টি সম্পর্কে অবগত হয়েছি। তদন্ত করে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।’

আরও পড়ুন