অক্সিজেন সেবা দেবে নড়াইল এক্সপ্রেস ফাউন্ডেশন

আপডেট: 04:39:21 07/07/2020



img

নড়াইল প্রতিনিধি : মাশরাফির হাতে গড়া ‘নড়াইল এক্সপ্রেস ফাউন্ডেশন’ এবার করোনায় আক্রান্ত রোগীদের জন্য জরুরি অক্সিজেন সেবার ব্যবস্থা করছে।
নড়াইল এক্সপ্রেস হেলথ কেয়ার সেন্টার ও শরীফ আব্দুল হাকিম ডায়াবেটিক হাসপাতাল থেকে এ কার্যক্রম পরিচালিত হবে। আগামি শুক্রবার (১০ জুলাই) এ চিকিৎসা সেবা চালু হবে।
এর আগে ফাউন্ডেশনের আর্থিক সহযোগিতায় জুন মাস থেকে সন্দেহভাজন করোনা রোগীদের শরীর থেকে নমুনা সংগ্রহ করতে নয়জন বেসরকারি মেডিকেল টেকনোলজিস্ট নিয়োগ দেওয়া হয়।
ফাউন্ডেশন সূত্রে জানা গেছে, নড়াইলে করোনায় আক্রান্ত রোগীদের অক্সিজেন সিলিন্ডার নিতে গেলে অবশ্যই বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকের লিখিত পরামর্শ থাকতে হবে। এক্সপার্ট বা নার্স দিয়ে অক্সিজেন সিলিন্ডার সেট করানোর দায়িত্ব রোগীর স্বজনদের। প্রথমবার সিলিন্ডারে ফ্রি অক্সিজেন পূর্ণ করে দেওয়া হবে। এর পরেও দরকার হলে রোগীর স্বজনরা নিজ দায়িত্বে অক্সিজেন রিফিল করে নেবেন। এছাড়া ফাউন্ডেশন থেকে পাল্স অক্সিমিটার প্রদানের চেষ্টা করা হবে।
নড়াইলের সরকারি হাসপাতালগুলোতে করোনা উপসর্গ নিয়ে কোনো গরিব ও সাধারণ রোগী ভর্তি হলে তারা অবহেলার শিকার হচ্ছেন বলে অভিযোগ করা হচ্ছে। বেসরকারি ক্লিনিকগুলোতে করোনা রোগীদের চিকিৎসা সেবা দেওয়া হয় না। এসব কারণে করোনায় আক্রান্ত প্রায় সবাই বাসায় চিকিৎসা নিয়ে থাকেন।
এ অবস্থায় শ্বাসকষ্টে অক্সিজেনের প্রয়োজন হলে তারা বিপদে পড়ছেন। নড়াইল এক্সপ্রেস ফাউন্ডেশন প্রধানত বাসায় আইসোলেশনে থাকা রোগীদের স্বাস্থ্য সেবা নিশ্চিত করতে এ উদ্যোগ নিয়েছে।
ফাউন্ডেশনের সাধারণ সম্পাদক তরিকুল ইসলাম অনিক বলেন, জেলায় করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা দিন দিন আশংকাজনকভাবে বাড়ছে। এদের প্রায় সবাই নিজ বাড়িতে আইসোলেশনে চিকিৎসা নিচ্ছেন। এদের অে কেরই অক্সিজেন সেবা প্রয়োজন। মূলত এদের চিকিৎসা সেবা মোটামুটি নিশ্চিত করার জন্য এ উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে।
‘নড়াইল এক্সপ্রেস ফাউন্ডেশন’ প্রতিষ্ঠার পর থেকে সংগঠনটি জেলার স্বাস্থ্য ব্যবস্থা উন্নয়নে নানা কাজ করে যাচ্ছে। নড়াইল এক্সপ্রেস হেলথ কেয়ার সেন্টার থেকে সাধারণ রোগীরা স্বল্প খরচে বিভিন্ন প্যাথলজিক্যাল টেস্ট এবং চিকিৎসাসেবা পেয়ে আসছেন। করোনা প্রাদুর্ভাব শুরু হলে জেলার প্রত্যন্ত অঞ্চলে ভ্রাম্যমাণ ফ্রি চিকিৎসা সেবার ব্যবস্থা করা হয়। এখন টেলি মেডিসিন ব্যবস্থা চালু রয়েছে। জেলায় করোনা নমুনা সংগ্রহকারী কম থাকায় নড়াইলের সিভিল সার্জনের মধ্যস্থতায় গত জুন মাসের ১৫ তারিখ থেকে নয়জন বেসরকারি মেডিকেল টেকনোলজিস্ট নিয়োগ দেওয়া হয়েছে।
জেলায় এই পর্যন্ত করোনা আক্রান্ত হয়ে সাতজন এবং করোনা উপসর্গ নিয়ে পাঁচজনের মৃত্যু হয়েছে।

আরও পড়ুন