সাবেক স্ত্রী ও তার স্বামীকে হত্যার চেষ্টা, আটক

আপডেট: 09:12:45 24/09/2021



img

স্টাফ রিপোর্টার: সাবেক স্ত্রী ও তার বর্তমান স্বামীকে গাড়ি চাপা দিয়ে হত্যার উদ্দেশ্যে গুরুতর আহত করার অভিযোগ উঠেছে শাহ আলম নামে এক ব্যক্তির বিরুদ্ধে।
তানিয়া (২৫) ও তার বর্তমান স্বামী কবির হোসেন (৪০) গুরুতর আহত হয়ে যশোর জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। শাহ আলমকে পুলিশ আটক করেছে।
ঘটনাটি ঘটেছে আজ শুক্রবার সন্ধ্যার একটু আগে যশোর শহরের মুজিব সড়কে প্রেসক্লাবের সামনে। শাহ আলম যশোর শহরতলীর পুলেরহাট গ্রামের রবিউল ইসলামের ছেলে।
আহত তানিয়া বেগম তার বর্তমান স্বামীর বাড়ি সদর উপজেলার মণ্ডলগাতি গ্রামে থাকেন।
কোতয়ালি থানার এসআই খান মাইদুল ইসলাম আহতদের উদ্ধৃতি দিয়ে বলেন, শাহ আলমের স্বভাব-চরিত্র ভালো না হওয়ায় স্ত্রী তানিয়ার সাথে তার ছাড়াছাড়ি হয়ে যায়। তানিয়া আবার বিয়ে করেন মণ্ডলগাতি গ্রামের কবির হোসেনের সাথে। আজ সন্ধ্যার দিকে তানিয়া স্বামী কবিরকে নিয়ে ক্যাফে প্রেসক্লাব থেকে খাওয়া-দাওয়া করে বের হন। এসময় শাহ আলম হঠাৎ করে ইজিবাইক চালিয়ে তাদের চাপা দেয়। এরপরে আবার শাহ আলম তানিয়াকে বেধড়ক মারপিট করে এবং কবিরকে আস্ত ইট দিয়ে মাথায় আঘাত করতে থাকে। পরে পুলিশ খবর পেয়ে স্থানীয়দের সহযোগিতায় আহত তানিয়া ও তার স্বামীকে হাসপাতালে পাঠায় এবং শাহ আলমকে আটক করে।
হাসপাতালের জরুরি বিভাগের ডাক্তার সালাউদ্দিন স্বপন বলেন, তানিয়া শঙ্কামুক্ত। তবে কবিরের মাথায় সিটিস্ক্যান না করে কিছু বলা যাচ্ছে না।
জানতে চাইলে কোতয়ালি থানার ওসি মো. তাজুল ইসলাম বলেন, ইজিবাইক চালক শাহ আলমকে আটক করা হয়েছে। তার বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

আরও পড়ুন