ইরাকের যুদ্ধক্ষেত্রও ছাড়ছে মার্কিন বাহিনী

আপডেট: 02:07:07 27/07/2021



img

সুবর্ণভূমি ডেস্ক: চলতি বছরের শেষের দিকে যুদ্ধক্ষেত্রে থাকা মার্কিন বাহিনী ইরাক ছেড়ে যাবে বলে জানিয়েছেন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন। যদিও মার্কিন সৈন্যরা ইরাকি সেনাদের প্রশিক্ষণ ও পরামর্শ দেওয়া অব্যাহত রাখবে। হোয়াইট হাউসে ইরাকি প্রধানমন্ত্রী মুস্তাফা আল-খাদেমির সঙ্গে বৈঠকের পর এই ঘোষণা দিয়েছেন জো বাইডেন।
সংবাদমাধ্যমের প্রতিবেদনে বলা হয়, ইরাক থেকে মার্কিন সেনাদের সরিয়ে নেওয়ার সিদ্ধান্তকে ইরাকি প্রধানমন্ত্রীকে সহায়তার পদক্ষেপ হিসেবে দেখা হচ্ছে।
বর্তমানে ইরাকে আড়াই হাজার মার্কিন সেনা রয়েছে। জঙ্গি গোষ্ঠী ইসলামিক স্টেটের বিরুদ্ধে স্থানীয় বাহিনীকে সহায়তার জন্য তারা সেখানে কাজ করছে বলে বলা হয়।
প্রতিবেদন আরও বলা হয়, গত বছর ইরাকের রাজধানী বাগদাদে মার্কিন ড্রোন হামলায় শীর্ষ ইরানি জেনারেল কাসেম সোলাইমানি এবং ইরান সমর্থিত শিয়া মুসলিম গোষ্ঠীর এক নেতা নিহত হওয়ার পর থেকে ইরাকে মার্কিন উপস্থিতি একটি প্রধান ইস্যু হয়ে দাঁড়িয়েছে। এরপর সুন্নি সশস্ত্র গ্রুপের অব্যাহত হুমকি থাকা সত্ত্বেও রাজনৈতিক দলগুলো ইরাক থেকে মার্কিন নেতৃত্বাধীন বিশ্বজোটে থাকা সেনাদের প্রত্যাহারের দাবি জানিয়ে আসছে।
এদিকে যুক্তরাষ্ট্রের অভিযোগ, শিয়া বাহিনী ইরাকি সামরিক ঘাঁটিগুলোতে কয়েকশ রকেট, মর্টার ও ড্রোন হামলা চালিয়েছিল। জোট বাহিনীকে ছেড়ে যাওয়ার জন্য চাপ সৃষ্টির চেষ্টা হিসেবে এ হামলা চালানো হয় বলে তাদের অভিযোগ।
ইরাক থেকে সেনাদের সরিয়ে নেওয়া এ সিদ্ধান্তের ফলে সাবেক মার্কিন প্রেসিডেন্ট জর্জ ডব্লিউ বুশের আমলে তৈরি হওয়া আরেকটি যুদ্ধের অবসান ঘটতে যাচ্ছে। চলতি বছরেই বর্তমান প্রেসিডেন্ট বাইডেন জানিয়েছেন, আফগানিস্তান থেকে মার্কিন সেনাদের সরিয়ে নেওয়া হবে।
সূত্র: বিবিসি, এনটিভি

আরও পড়ুন