‘যাগের আসার কথা তারা তো আসে না’

আপডেট: 02:53:15 23/05/2020



img

চন্দন দাস, বাঘারপাড়া (যশোর) : সমাজের অসঙ্গতির বিরুদ্ধে অবস্থান ওদের। মাদক সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে ওরা সোচ্চার। শিক্ষার আলো ছড়িয়ে দিতে ওরা কাজ করে চলেছেন কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে।
অসহায় মানুষের পাশে দাঁড়াতে ওরা ঐক্যবদ্ধ। করোনা সংকটেও বসে নেই।
বাঘারপাড়া উপজেলার মাহমুদপুর গ্রামের ‘শিক্ষার আলো গ্রন্থাগার’-এর সদস্যরা করোনা সংকটে থাকা মানুষের পাশে থেকেছেন শুরু থেকেই। গ্রামের মানুষের মাঝে সচেতনতা সৃষ্টি করাসহ নানাভাবে কাজ করে চলেছেন স্বেচ্ছাসেবী এ প্রতিষ্ঠানের সদস্যরা।
ধারাবাহিক কর্মকাণ্ডের অংশ হিসেবে ঈদকে উপলক্ষ করে শনিবার তারা ১৫০ গরিব পরিবারের মাঝে পৌঁছে দিয়েছেন ‘ঈদ উপহার’। দরিদ্র পরিবারকে খুঁজে বের করে এ উপহার বিতরণ করেন তারা।
মাহমুদপুর গ্রামের অশীতিপর বৃদ্ধা আমেনা বেগম ঈদ উপহার পেয়ে বেশ খুশি। বলেন, ‘যাগের আসার কথা তারা তো আসে না। গ্রামের পোলাপানরা আমার বাড়ি আইসে ঈদের দিনির খাবার দিয়ে গেল। আমি খুশি হইছি।’
২০১৯ সালের ১৬ আগস্ট বাঘারপাড়ার বাসুয়াড়ী ইউনিয়নের মাহমুদপুর গ্রামের ৪০ জন যুবক গড়ে তোলেন ‘শিক্ষার আলো গ্রন্থাগার’। এতে নেতৃত্ব দেন ওই এলাকার মধ্যবয়সী যুবক মুরাদ হোসেন। এ প্রতিষ্ঠানের ব্যানারে নানা সামাজিক কর্মকাণ্ড পরিচালনা করা হয়।
চলতি বছরের জানুয়ারি মাসে ছয়টি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের ৮৪ মেধাবী শিক্ষার্থীকে সংবর্ধনাসহ বৃত্তি প্রদান করেছেন তারা। সদস্যদের চাঁদায় চলে এ সংগঠনের কার্যক্রম।
প্রতিষ্ঠানটির প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি মুরাদ হোসেন বলেন, ‘শিক্ষার আলো ছড়িয়ে দিতে আমরা কাজ করে চলেছি। পাশাপাশি আমরা অসহায় ও দুস্থ মানুষের সেবা করতে চাই। সে লক্ষ্য নিয়েই এগিয়ে যাচ্ছি।’
সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক হাবিব হোসেন বলেন, ‘আমরা সমাজ বিনির্মাণে কাজ করে যেতে চাই। দাঁড়াতে চাই অবহেলিত মানুষের পাশে।’