হত্যার তিন দিন পর লাশ ফেরত দিলো বিএসএফ

আপডেট: 02:12:21 11/11/2019



img

কালীগঞ্জ (ঝিনাইদহ) প্রতিনিধি : হত্যার তিনদিন পর সুমন (২৫) নামে সেই বাংলাদেশি যুবকের লাশ ফেরত দিয়েছে ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিনী (বিএসএফ)।
রোববার বিকেলে দুই দেশের বিজিবি-বিএসএফ কোম্পানি কমান্ডার পর্যায়ে পতাকা বৈঠকের মাধ্যমে সুমনের লাশ হস্তান্তর করা হয়।
গত ৮ নভেম্বর শুক্রবার ভোরে বিএসএফ সদস্যরা সুমনকে গুলি করে হত্যা করে। এদিন ভোরে ৫৮ বিজিবির অধীনস্থ লড়াইঘাট বিওপির বিপরীতে বিএসএফ ৮ ব্যাটালিয়নের পাখিউড়া ক্যাম্প এলাকার মেইন পিলার ৬০/১৩৩-১৩৪-আর এর মাঝখানে ভারতের অভ্যন্তরে নদীয়া জেলার হাসখালী শিলগেটে পাখিউড়া ক্যাম্পের বিএসএফ সদস্যরা তাকে লক্ষ্য করে গুলি করে।
রোববার সন্ধ্যায় ঝিনাইদহের মহেশপুর ৫৮ বিজিবির অতিরিক্ত পরিচালক (উপ-অধিনায়ক) কামরুল হাসান নিহত সুমনের লাশ ফেরত পাওয়ার খবর জানান।
নিহত সুমন মহেশপুর উপজেলার শ্যামকুড় পশ্চিমপাড়ার আব্দুল মান্নানের ছেলে।
ঝিনাইদহ ৫৮ বিজিবির অতিরিক্ত পরিচালক (উপ-অধিনায়ক) কামরুল হাসান জানান, লাশটি পাখিউড়া বিএসএফ ক্যাম্প এবং হাসখালী থানা পুলিশের হেফাজতে ছিল। উভয় দেশের কোম্পানি কমান্ডার পর্যায়ে পতাকা বৈঠকের পর মহেশপুর থানা পুলিশের কাছে লড়াইঘাট বিওপির ৬০/১২১-আর এর পিলার এলাকায় মৃতদেহটি হস্তান্তর করে ভারতীয় পুলিশ। পরে মহেশপুর থানা পুলিশ সুমনের আত্মীয়-স্বজনের কাছে মৃতদেহ হস্তান্তর করে।

আরও পড়ুন