সাতক্ষীরায় বিনাখরচে চিকিৎসা সেবা পেলেন ৪৮৬ জন

আপডেট: 02:40:34 04/01/2021



img

সাতক্ষীরা প্রতিনিধি: বিনামূল্যে চিকিৎসাসেবা পেলেন সাতক্ষীরার শ্যামনগর ও খুলনার কয়রা উপজেলার উপকূলের ৪৮৬ জন অসহায় মানুষ।
২০২০ সালের ডিসেম্বর মাসজুড়ে শ্যামনগরের চারটি ও কয়রার দুটি ইউনিয়নের ১৪টি স্থানে এই স্বাস্থ্যক্যাম্প পরিচালিত হয়।
ক্যাম্পগুলোতে নারী ও শিশুসহ সকল কার্ডধারীকে বিনামূল্যে ব্যবস্থাপত্রসহ ৮০ শতাংশ ছাড়ে ওষুধ প্রদান করা হয়েছে।
স্বাস্থ্যক্যাম্প সূত্র জানায়, চিকিৎসা সেবাগ্রহীতাদের মধ্যে পানিবাহিত রোগে ভুগছিলেন ১০ শতাংশ, চর্মরোগে ১২ শতাংশ, উচ্চ রক্তচাপে ৫ শতাংশ, ঋতুকালীন সমস্যায় ৪ শতাংশ, সাধারণ সর্দি কাশি-জ্বরে ১৩ শতাংশ, অপুষ্টি ও সাধারণ দুর্বলতায় ৮ শতাংশ, মাজা ও পিঠে ব্যথায় ৪৬ শতাংশ এবং অন্যান্য রোগে ভুগছিলেন ২ শতাংশরোগী।
কয়রা উপজেলার কাশীর হাটখোলার দরিদ্র কৃষক গোপাল মন্ডল বলেন, স্বাস্থ্যসেবা কার্যক্রমে আমরা খুবই উপকৃত হচ্ছি। আমাদের কাছে এসে সেবা দেওয়ায় খুব সহজেই স্বাস্থ্যসেবা নিতে পারছি। একদিকে যেমন টাকাও খরচ হচ্ছে না, অন্যদিকে সময়ও নষ্ট হচ্ছে না।
বিনামূল্যে স্বাস্থ্য ক্যাম্প পরিচালনার বিষয়ে লিডার্স'র নির্বাহী পরিচালক মোহন কুমার মন্ডল বলেন, জলবায়ু পরিবর্তনের কারণে উপকূলীয় এলাকায় নানা ধরনের রোগের প্রকোপ বেড়েছে। বাংলাদেশের দক্ষিণ-পশ্চিম উপকূলীয় এলাকা হিসেবে সাতক্ষীরা জেলার শ্যামনগর উপজেলা এবং খুলনা জেলার কয়রা উপজেলা অত্যন্ত ঝুঁকিপূর্ণ এলাকা। গ্রামের ডাক্তার দিয়েই চলে তাদের চিকিৎসা। ভাল চিকিৎসাসেবা নিতে হলে তাকে যেতে হয় ৩০-৪০ কিলোমিটার পথ অতিক্রম করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে। আর্থিক সংকটের কারণে সেটাও সম্ভব হয়ে ওঠে না কারো কারো ক্ষেত্রে। তাদের এই কষ্টের কথা চিন্তা করে লিডার্স প্রতিমাসে বিনামূল্যে স্বাস্থ্য ক্যাম্প পরিচালনার উদ্যোগ গ্রহণ করেছে।

আরও পড়ুন