শৈলকুপায় অপহৃত যুবকের লাশ মাটি খুঁড়ে উদ্ধার

আপডেট: 02:20:47 25/09/2020



img
img

ঝিনাইদহ প্রতিনিধি : শৈলকুপায় এক যুবকের গলাকাটা লাশ উদ্ধার হয়েছে; যাকে পাঁচদিন আগে অপহরণ করা হয়েছিল। হত্যাকাণ্ডে যুক্ত অভিযোগে পুলিশ তিনজনকে আটক করেছে।
শৈলকুপা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) জাহাঙ্গীর আলম জানান, উপজেলার হাজামপাড়া গ্রামের একটি একটি শ্যালো মেশিনের ঘরের মাটি খুঁড়ে বৃহস্পতিবার গভীর রাতে সুজন (২১) নামে ওই যুবকের লাশ উদ্ধার করা হয়।
সুজন  আউশিয়া গ্রামের মালয়েশিয়া প্রবাসী জিল্লুর রহমানের ছেলে।
সুজনের চাচা শফিউদ্দিন বলেন, ‘রোববার বিকেলে শৈলকুপা টেলিফোন একচেঞ্জ ভবনের সামনে থেকে রাকিব ও সাকিব নামে দুইজন টাকা দেওয়ার কথা বলে সুজনকে মোটরসাইকেলে তুলে নিয়ে যায়। এরপর থেকে তার কোনো খোঁজ পাওয়া যাচ্ছিল না। পরে শ্যালো মেশিনের ঘরের মাটি খুঁড়ে তার গলাকাটা লাশ উদ্ধার করে পুলিশ।
থানার ওসি বলছেন, অপহরণের ঘটনায় জড়িত সন্দেহে তিনজনকে আটক করা হয়। তারা হলেন- শৈলকুপা উপজেলার হাজামপাড়া গ্রামের  বাবলু শেখের ছেলে সাকিব (২০), কলিম উদ্দিনের ছেলে নাজমুল (১৮) ও ১৫ বছরের এক কিশোর। আটকদের জিজ্ঞাসাবাদ করে পুলিশ কিছু তথ্য পায়।  তাদের মধ্যে ওই কিশোরের দেওয়া তথ্যের ভিত্তিতে সুজনের লাশ উদ্ধার করা হয়।
ময়নাতদন্তের জন্য লাশ ঝিনাইদহ সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে বলে জানায় পুলিশ।

আরও পড়ুন