শারীরিক সম্পর্কের ছবি ভিডিও নেটে, শিক্ষক গ্রেফতার

আপডেট: 02:14:23 05/04/2020



img

পাইকগাছা (খুলনা) প্রতিনিধি : পাইকগাছায় এক ছাত্রীর মায়ের সঙ্গে শারীরিক সম্পর্ক গড়ে তুলে সেই ছবি ও ভিডিও ইন্টারনেটে ছড়িয়ে দেওয়ার অভিযোগ করা হচ্ছে এক স্কুলশিক্ষকের বিরুদ্ধে।
এই ঘটনায় পর্নোগ্রাফি এবং নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা হওয়ার পর পুলিশ তরিকুল ইসলাম নামে ওই শিক্ষককে গ্রেফতার করেছে।
এজাহারে বলা হয়েছে, উপজেলার একটি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ২০১৪ সাল থেকে ২০১৯ সালের মার্চ মাস পর্যন্ত তরিকুল ইসলাম সহকারী শিক্ষক ছিলেন। সেই সময় ওই স্কুলের দ্বিতীয় শ্রেণির এক ছাত্রীকে প্রাইভেট পড়ানোর সুযোগে তার মায়ের সঙ্গে শারীরিক সম্পর্ক গড়ে তোলেন তরিকুল। দুইজনের অন্তরঙ্গ মুহূর্তের ছবি ও ভিডিও রয়েছে তরিকুলের ফোনে।
তরিকুল পরে অন্য স্কুলে বদলি হলেও ওই নারীর সঙ্গে তার অনৈতিক সম্পর্ক বজায় রাখার চেষ্টা করেন। কিন্তু ছাত্রীর মা এতে আর রাজি হননি। এরপর তরিকুল তার ফোনে ধারণ করা ছবি ও ভিডিও ইন্টারনেটে ছড়িয়ে দেওয়ার হুমকি দিতে থাকেন। এক পর্যায়ে ছবি ও ভিডিও মোবাইল ফোন থেকে ডিলেট করার শর্তে ওই নারী তরিকুলের আহ্বানে সাড়া দেন গত ১০ ফ্রেব্রুয়ারি রাতে। কিন্তু তরিকুল কথা রাখেননি। পুরনো ছবি ও ভিডিও ইন্টারনেটে ছড়িয়ে দেন তিনি।
বাধ্য হয়ে ওই নারী গত শনিবার তরিকুলের বিরুদ্ধে পর্নোগ্রাফি এবং নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা করেন।
থানার ওসি মো. এজাজ শফী জানান, ভিকটিমের অভিযোগের প্রাথমিক সত্যতা পাওয়ায় নিয়মিত মামলা রুজু হয়েছে। ভিকটিমকে উদ্ধার ও আলামত জব্দ করে ফরেনসিক পরীক্ষার জন্য সংশ্লিষ্ট দপ্তরে পাঠানো হয়েছে।

আরও পড়ুন