লোহাগড়ায় চোখ বেঁধে নির্যাতন, ওসি ক্লোজড

আপডেট: 10:06:10 12/11/2019



img
img

নড়াইল প্রতিনিধি : নড়াইলের লোহাগড়া থানা পুলিশের হেফাজতে শিহাব মল্লিক (২৮) নামের এক ব্যবসায়ীকে চোখ বেঁধে ও হাতকড়া পরিয়ে নির্যাতনের অভিযোগে থানার ওসি মোকাররম হোসেনকে প্রত্যাহার করা হয়েছে।
আজ মঙ্গলবার (১২ নভেম্বর) দুপুরে তাকে মেহেরপুর পুলিশ লাইনে সংযুক্ত করা হয়।
নির্যাতনের শিকার শিহাব মল্লিক লোহাগড়া পৌর এলাকার গোপীনাথপুর গ্রামের এনামুল মল্লিকের ছেলে।
অবশ্য ওসি-কে বন্দি নির্যাতনের কারণে প্রত্যাহার করা হয়েছে- পুলিশ এই কথা সরাসরি স্বীকার করেন।
পুলিশ সুপার মোহাম্মদ জসিম উদ্দিন বলেন, প্রশাসনিক কাজে অবহেলার কারণে লোহাগড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোকাররম হোসেনকে প্রত্যাহার করে মেহেরপুর পুলিশ লাইনে সংযুক্ত করা হয়েছে।
লোহাগড়া থানা হেফাজতে শিহাব মল্লিক (২৮) নামে এক যুবককে চোখ বেঁধে ও পেছনে হাতকড়া পরিয়ে অমানুষিক নির্যাতনের অভিযোগ ওঠে পুলিশের বিরুদ্ধে। নির্যাতনের শিকার শিহাব মল্লিক একটি মামলায় জামিনে মুক্ত হয়ে বৃহস্পতিবার  লোহাগড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি হন। তিনি লোহাগড়া পৌর এলাকার গোপীনাথপুরের এনামুল মল্লিকের ছেলে।
শিহাব মল্লিক জানান, পারিবারিক বিরোধের একটি মামলায় পুলিশ তাকে ধরে বেধড়ক মারপিট করে।  নির্যাতন সহ্য করতে না পেরে তিনি কয়েকবার জ্ঞান হারিয়ে ফেলেন। সোমবার তাকে কিছুটা সুস্থ করে আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে পাঠানো হয়।
পরে তিনি জামিনে মুক্ত হয়ে বৃহস্পতিবার (৭ নভেম্বর) লোহাগড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি হন।
এদিকে, অভিযোগ তদন্তে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. ইমরান শেখকে প্রধান করে তিন সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে।

আরও পড়ুন