যে কারণে প্রশংসায় ভাসছে ‘জানোয়ার’!

আপডেট: 07:11:20 20/01/2021



img

সুবর্ণভূমি ডেস্ক : অন্তর্জালে ক’দিন আগেও তুমুল হাততালি তুলে নিলো ওয়েব সিরিজ ‘তাকদীর’ টিম। ‘তাকদীর’ রেশ না কাটতেই এক সপ্তাহজুড়ে অন্তর্জালে সবকিছু ছাপিয়ে আলোচনায় আছে রায়হান রাফির ওয়েব ফিল্ম ‘জানোয়ার’। যার দৌলতে স্পটলাইটে আছেন এর অভিনেতা রাশেদ মামুন অপুও।
মুক্তির পর থেকে নেটিজেনদের মধ্যে তুমুল সাড়া ফেলেছে ৯০ মিনিট ব্যাপ্তির এই ছবিটি। ১৪ জানুয়ারি দেশীয় ওটিটি প্ল্যাটফর্ম সিনেমাটিক-এ মুক্তি পেয়েছে ছবিটি।
২০২১ সালের শুরুতেই এমন ওয়েব ফিল্ম পেয়ে বছরটিকে শোবিজ পাড়ার জন্য ইতিবাচক মনে করছেন দর্শক-সমালোচকরা। লাইভ টেকনোলজির ব্যানারে নির্মিত সিনেমাটি প্রযোজনা করেছে টার্ন কমিউনিকেশনস।
ফেসবুকে পজিটিভ রিভিউ হলেও ঠিক কতোটা সাড়া ফেলেছে ‘জানোয়ার’- এমনটা অনুসন্ধানের চেষ্টা করে বাংলা ট্রিবিউন। কারণ, সোশ্যাল মিডিয়ায় যতটুকু রটে বাস্তবে ততোটা ঘটে না বলেও অভিযোগ রয়েছে।
তবে এক্ষেত্রে অনুসন্ধানে মিলেছে খানিক বিস্ময়কর চিত্র। জানা গেছে, এই ‘জানোয়ার’ এর সুবাদে প্রতিদিন গড়ে এক লাখ দর্শক সিনেমাটিক অ্যাপ-এ প্রবেশ করছে! যেটা আশাতীত বলেই মনে করছেন ওটিটি সংশ্লিষ্টরা।
লাইভ টেকনোলজিসের পরিচালক ইয়াসির আরাফাত বলেন, ‘‘১৪ জানুয়ারি থেকে আমরা ‘জানোয়ার’ উন্মুক্ত করি দর্শকদের জন্য। ১৮ জানুয়ারি পর্যন্ত সেটি দেখেছেন ৪ লাখ ২৪ হাজার ৯৬১ জন! যেটা এর আগে আমাদের আর কোনও কনটেন্টের বেলায় ঘটেনি। আমরা এখনও ২৪ ঘণ্টায় লাখের ওপর দর্শক ভিজিট করতে দেখছি অ্যাপটিতে।’’
এর কারণ হিসেবে সিনেমাটিক-এর এই পরিচালক মনে করেন- ভালো গল্প এবং অল্প খরচ, এই দুটোর সমন্বয় ঘটেছে এখানে।
‘জানোয়ার’ নির্মাতা রায়হান রাফি বললেন, ‘‘এই কাজটির মাধ্যমে একটি বিষয় প্রমাণ হলো- কনটেন্ট হিট হতে কিছুই লাগে না, গল্পের জোর থাকলেই হয়। ‘জানোয়ার’ মুক্তির পর দর্শকদের ভালোলাগা, পাগলামি দেখে আমরা অভিভূত। সবাই কাজটি এতটা পছন্দ করবেন, আশা করিনি।’’
গত বছর করোনার কারণে যখন লকডাউন চলছিল দেশব্যাপী, তখন ঢাকার অদূরে গাজীপুরে ঘটে যাওয়া খুন ও গণধর্ষণের একটি মর্মান্তিক ঘটনা ঘটে। একই পরিবারের ৪ জনকে গলা কেটে হত্যা করা হয়। পরবর্তীতে জানা যায় ওই পরিবারের ৩ জন নারী সদস্যকে হত্যার আগে ধর্ষণ করা হয়েছিল। সেই মর্মান্তিক ঘটনাকে কেন্দ্র করে রায়হান রাফি নির্মাণ করেন এই ওয়েব ফিল্ম ‘জানোয়ার’।
এতে অভিনয় করেছেন রাশেদ মামুন অপু, তাসকিন রহমান, ফরহাদ লিমন, জাহাঙ্গীর আলম, জামশেদ শামীম, আর এ রাহুল, এলিনা শাম্মী, মুনমুন আহমেদ, আরিয়া অরিত্র ও মাহফুজুর রহমান। প্রত্যেকের অভিনয়ই দর্শক-সমালোচকদের মন জয় করে নিয়েছে।
তবে এরমধ্যে নিজের জাতটা একটু আলাদা করে চেনালেন রাশেদ মামুন অপু। ঘুরে-ফিরে তার নামটাই উঠে আসছে দর্শকদের মুখে। কারণ, আগে অপুর পরিচিতি ছিলো অনেকটা কমেডি ঘরানার। আর এবার সেটি উল্টে গেল পুরোটাই।
অপু বলেন, ‘অভিনয় দিয়ে জীবনে তেমন কোনও অ্যাপ্রিসিয়েশন পাইনি। নীরবে নিভৃতে কাজ করে গিয়েছি। এমনকি কেউ কোনোদিন ডেকে এটুকুও বলেনি- কাজ কর, ভালো করবি! হতে পারে, আমি সেভাবে কোনও কাজ দেখাতে পারিনি। এবার দর্শক যেভাবে আমার প্রশংসা করছে, আমি সত্যিই আপ্লুত। এটা আমার নতুন জীবন। মানুষ যে এত পছন্দ করছে এরচেয়ে বড় পুরস্কার আর কিছু হতে পারে না।’
অপু কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন ‘জানোয়ার’-এর পরিচালক, প্রোডাকশন হাউজ, অগুনতি দর্শকদের প্রতি।
সূত্র: বাংলা ট্রিবিউন

আরও পড়ুন