যুবলীগ কর্মী সোহাগ হত্যায় ১১ জন অভিযুক্ত

আপডেট: 10:43:06 06/08/2020



img

স্টাফ রিপোর্টার : যশোর শহরের পুরাতন কসবা কাজীপাড়ার যুবলীগ কর্মী শরিফুল ইসলাম সোহাগ হত্যা মামলার চার্জশিট আদালতে দাখিল হয়েছে।
মামলার তদন্ত শেষে ১১ জনকে অভিযুক্ত করে আদালতে এই চার্জশিট দাখিল করেন ডিবি পুলিশের বিদায়ী ওসি মারুফ আহমেদ। অভিযুক্তরাও একই সংগঠনের নেতাকর্মী।
গত ২০১৮ সালের ২৮ আগস্ট রাত সোয়া ১২টার দিকে শহরের কাজীপাড়ায় নিজ বাড়ির কাছে সন্ত্রাসীদের হাতে খুন হন যুবলীগ কর্মী সোহাগ। এ ঘটনায় নিহতের ভাই ফেরদাউস হোসেন আটজনের নাম উল্লেখসহ অজ্ঞাতনামা আরো কয়েকজনকে আসামি করে কোতয়ালী থানায় মামলা করেন। এরই মধ্যে তাইজেল নামে একজনের মাথার খুলি উড়ে যায়, যিনি সোহাগ হত্যায় অন্যতম অভিযুক্ত ছিলেন।
তদন্ত শেষে আদালতে এ চার্জশিট জমা দেন যশোর ডিবি পুলিশের বিদায়ী ওসি মারুফ আহমেদ। তিনি ফোনে চার্জশিট দাখিলের তথ্য নিশ্চিত করেছেন।
চার্জশিটে যুবলীগ নেতা ও শহরের কাজীপাড়া মানিকতলার জাহিদ হোসেন মিলন ও কাজীপাড়া কাঁঠালতলার তৌহিদ চাকলাদার ফন্টুসহ ১১ জনকে অভিযুক্ত করা হয়েছে। অভিযুক্ত অপর নয়জন হলেন, কাজীপাড়া গোলামপট্টির মৃত আব্দুল খালেকের ছেলে ইয়াসিন মোহাম্মদ কাজল, ধর্মতলার মো. কালিমের ছেলে টিপু, কাজীপাড়া গোলামপট্টির আবুল কাশেম ওরফে পিকুলের ছেলে সাগর, মো. সিরাজের ছেলে তরুণ, আব্দুল বাকেরের ছেলে আলামিন, কাজীপাড়ার মোহাম্মদ আলীর ছেলে ডাবলু, কাজীপাড়া আমতলার এস এম আকাশ, ঘোপ জেল রোডের এস এম মহিউদ্দিন ও সদর উপজেলার বাহাদুরপুর গ্রামের লিটন।
চার্জশিটে অভিযুক্ত তৌহিদ চাকলাদার ফন্টু, ইয়াছিন মোহাম্মদ কাজল, তরুণ, ডাবলু ও টিপুকে পলাতক দেখানো হয়েছে।

আরও পড়ুন