যশোর জেনারেল হাসপাতালে অভিযান

আপডেট: 08:44:29 18/11/2019



img

স্টাফ রিপোর্টার : ভ্রাম্যমাণ আদালত আজ যশোর জেনারেল হাসপাতাল ও দুই ওষুধের দোকানে অভিযান পরিচালনা করেছেন।
যশোরের আরডিসি ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট কেএম আবু নওশাদ, নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট হাফিজুল হক ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ফারজানা জান্নাত সোমবার সকাল ও বিকেলে এই অভিযান পরিচালনা করেন। তারা দুটি ওষুধের দোকানে জরিমানাও করেন।
ভ্রাম্যমাণ আদালতের পেশকার শেখ জালাল উদ্দিন বলেন, যশোর জেনারেল হাসপাতাল চত্বরে সব সময় বিভিন্ন অ্যাম্বুলেন্স, মাইক্রোবাস, ট্যাক্সি, মোটরসাইকেল যত্রতত্র রাখা হয়। ফলে রোগী ও স্বজনদের চলাচলে বিঘ্ন সৃষ্টি হয়। বিভিন্ন ক্লিনিকের দালাল, টাউটরা হাসপাতালকে জিম্মি করে রেখেছে। ফলে সেবা নিতে আসা লোকেরা হয়রানি ও প্রতারণার শিকার হন। হাসপাতাল সুপারের অভিযোগের ভিত্তিতে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট কেএম আবু নওশাদ অভিযান পরিচালনা করেন। অভিযানকালে টাউট, দালাল ও প্রতারকদের বিতাড়িত করা হয়। সরিয়ে দেওয়া হয় যত্রতত্র রাখা গাড়িগুলোও।
এদিকে, একইদিন বিকেলে আলাদা অভিযানে মেয়াদোত্তীর্ণ ওষুধ দোকানে সংরক্ষণ ও বিক্রি করার অপরাধে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ফারজানা শহরের দড়াটানায় মেসার্স কাজী ফার্মেসির মালিক আনোয়ারুল ইসলামকে তিন হাজার টাকা জরিমানা করে তা আদায় করেন।
এর আগে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট হাফিজুল কবির শহরের  আরবপুরে অবস্থিত ‘ঢাকা হারবাল’ নামে একটি প্রতিষ্ঠানের মালিক মুজিবুল হককে বিপজ্জনক ওষুধ বিক্রির অপরাধে ৫০০ টাকা জরিমানা করে তা আদায় করেন।

আরও পড়ুন