যশোর কেন্দ্রীয় কারাগারে নিরাপত্তা জোরদার

আপডেট: 07:29:04 15/09/2020



img

স্টাফ রিপোর্টার :  দেশের আর সব জেলখানার মতো যশোর কেন্দ্রীয় কারাগারের নিরাপত্তাও জোরদার করা হয়েছে।
কেন্দ্রীয় নির্দেশনা অনুযায়ী গঠন করা হয়েছে সাত সদস্যবিশিষ্ট স্ট্রাইকিং ফোর্স। ‘জঙ্গি’সহ বিভিন্ন সংবেদনশীল মামলায় আটক বন্দিদের চলাচল ও গতিবিধি কঠোরভাবে নজরদারি করা হচ্ছে। কারাগারের চারপাশের সীমানা প্রাচীর সুরক্ষিত এবং অ্যালার্ম সিস্টেম প্রস্তুত রাখা হয়েছে। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন যশোর কেন্দ্রীয় কারাগারের সিনিয়র সুপার সুব্রতকুমার বালা।
কারা সূত্র জানায়, কারা প্রশাসন থেকে তাদের সর্বোচ্চ সতর্কাবস্থায় থাকার নির্দেশনা এসেছে। তার প্রেক্ষিতে কাজ শুরু করে এখানকার কারা প্রশাসন।
যশোর কেন্দ্রীয় কারাগারের জেলার তুহিনকান্তি খানকে প্রধান করে সাত সদস্যবিশিষ্ট একটি স্ট্রাইকিং ফোর্স গঠন করা হয়েছে। সম্ভাব্য আক্রমণ প্রতিরোধে তারা প্রস্তুত রয়েছে। কারাগারের বাইরের গেটে দায়িত্ব পালনকারীদের বুলেটপ্রুফ জ্যাকেট ও হেলমেট বাধ্যতামূলক করা হয়েছে। এছাড়া বহিরাগতদের প্রবেশে কঠোর নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে। কারাসদস্যদের প্রবেশ-বেরোনোর ক্ষেত্রে মেটাল ডিটেক্টর দিয়ে তল্লাশিসহ নাম-ঠিকানা লিপিবদ্ধ বাধ্যতামূলক করা হয়েছে।
এ বিষয়ে যশোর কেন্দ্রীয় কারাগারের সিনিয়র সুপার সুব্রতকুমার বালা জানান, যশোর কেন্দ্রীয় কারাগারে সতর্কতা জোরদার করার পাশাপাশি সর্বক্ষণিক মনিটরিং চলছে। কারো গতিবিধি সন্দেহ হলেই তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে।
রোববার যশোর কেন্দ্রীয় কারাগারে এক হাজার ৪২৫ জন বন্দি ছিলেন। তাদের মধ্যে ‘জেএমবি সদস্য’ রয়েছেন ১৫ জন।
সম্প্রতি অজ্ঞাত দুর্বৃত্ত লালমনিরহাট জেলা কারাগারে বোমা মেরে জঙ্গি আসামি ছিনিয়ে নেওয়ার চিঠি ও মোবাইলে হুমকি দেয় বলে খবর বের হয়। এরপর কারা প্রশাসন সারা দেশের কারাগারগুলোতে নিরাপত্তা জোরদার করতে চিঠি পাঠায়।

আরও পড়ুন