যশোরে ১৭ লাখ টাকা ছিনতাই করেছিল যারা

আপডেট: 05:41:02 01/10/2020



img
img
img

স্টাফ রিপোর্টার : যশোর কোতয়ালী থানার পাশে ইউনাইটেড কমার্শিয়াল ব্যাংকের সামনে থেকে বোমা ফাটিয়ে ও ছুরি মেরে ১৭ লাখ টাকা ছিনতাই ঘটনায় ‘জড়িত’ পাঁচজনকে গ্রেফতারের দাবি করেছে পুলিশ।
পুলিশের ভাষ্য, উদ্ধার হয়েছে ছিনতাই হওয়া দুই লাখ সাড়ে ৪৮ হাজার টাকা এবং ছিনতাইয়ে ব্যবহৃত দুটি চাকু, একটি ব্যাগ ও মোটরসাইকেল।
ঘটনার পর থেকে বৃহস্পতিবার ভোর পর্যন্ত শহর ও শহরতলীর বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়ে অভিযুক্তদের আটক ও ছিনতাই করা টাকা উদ্ধার করা হয়।
এদিন দুপুরে যশোরের পুলিশ সুপারের কার্যালয়ে আয়োজিত ব্রিফিংয়ে এই তথ্য দেন পুলিশ সুপার আশরাফ হোসেন।
এসপি বলেন, যারা এই ছিনতাই করেছিল, তাদের প্রত্যেকের নামে থানায় বিভিন্ন অপরাধের মামলা রয়েছে। ঘটনার পর সেখানে থাকা সিসি টিভির ফুটেজ এবং যোগাযোগ প্রযুক্তি ব্যবহার করে আসামিদের শনাক্ত করা হয়।
তিনি জানান, এরপর পুলিশের বিভিন্ন ইউনিটের সমন্বয়ে অভিযান চালিয়ে শহরের ধর্মতলা, বসুন্দিয়া, আলাদিপুর, বারান্দিপাড়া, সিটি কলেজপাড়া ও পুলিশ লাইন টালিখেলা এলাকায় একাধিক অভিযান চালিয়ে ‘জড়িত’দের আটক করা হয়। আটক ব্যক্তিরা হলেন, শহরের পুলিশ লাইন টালিখোলা এলাকার শফি দারোগার বাড়ির ভাড়াটিয়া টিপু, বারান্দি মোল্লাপাড়ার রবিউল ইসলামের ছেলে সাইদ ইসলাম, ধর্মতলা হ্যাচারিপাড়ার রুহুল আমিনের ছেলে বিল্লাল হোসেন, সিটি কলেজপাড়ার নিজাম উদ্দিনের ছেলে রায়হান এবং পূর্ব বারান্দিপাড়ার মৃত মুফতি আলি হোসেনের ছেলে ইমদাদুল হক।
আটকের পর তাদের কাছ থেকে দুই লাখ সাড়ে ৪৮ হাজার টাকা এবং ছিনতাইয়ে ব্যবহৃত দুটি চাকু, একটি ব্যাগ এবং মোটরসাইকেল উদ্ধার করা হয়।
পুলিশ সুপার জানান, আটক ‘ছিনতাইকারীরা’ শহরের মণিহার এলাকায় চলাফেরা করে। ওই এলাকায় মোটরপার্টস ও ফলের ব্যবসা করেন এনামুল হক। তাকে ছুরি মেরে ২৯ সেপ্টেম্বর দিনের বেলা এরা টাকা ছিনতাই করে। জড়িত অন্যদেরকেও ধরার চেষ্টা করা হচ্ছে বলে জানান এসপি।

আরও পড়ুন