মহেশপুরে ছেলেকে খুন করে মায়ের আত্মহত্যা

আপডেট: 04:57:52 30/05/2020



img

তারেক মাহমুদ, কালীগঞ্জ (ঝিনাইদহ) : ঝিনাইদহের মহেশপুরে ছয় বছরের এক ছেলেসন্তানকে হত্যার পর গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছেন রিফা খাতুন (২৬) নামের এক নারী।
শুক্রবার রাতে উপজেলার নেপা ইউনিয়নের বাকোশপোতা গ্রামে এ মর্মান্তিক ঘটনা ঘটে।
নিহত ছেলের নাম রাব্বি হাসান রিফাত। রিফা খাতুন বাকোশপোতা গ্রামের মামুন হোসেনের স্ত্রী।
স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদের মেম্বার মো. নজরুল ইসলাম নিহতের পরিবারের সদস্যদের বরাত দিয়ে জানান, পরিবারের প্রধান একজন দরিদ্র কৃষক। অভাব অনটনের সংসারে প্রায়ই ঝগড়া-বিবাদ লেগে থাকতো। ওই গৃহবধূ দীর্ঘদিন ধরে মানসিক সমস্যায় ভুগছিলেন। প্রতিবেশিরা যেটাকে ‘বাতাসের ভাব বা জিনের আছর’ বলে আখ্যা দিতেন। এর আগেও কয়েকবার তিনি আত্মহত্যা করতে গিয়েছিলেন বলে জানান এই ইউপি সদস্য।
মহেশপুর থানার ওসি মোর্শেদ হোসেন খান জানান, শুক্রবার দিবাগত রাতে শিশুপুত্র রিফাতকে সাথে নিয়ে তার বাবা মামুন হোসেন ঘরের বারান্দায় ঘুমিয়ে ছিলেন। রাত তিনটার দিকে গোয়ালঘরে গরুর খাবার দিয়ে ফিরে এসে তিনি দেখেন, বিছানায় তার ছেলে রাব্বি নেই। পরে জানালা দিয়ে টর্চের আলোয় দেখতে পান. ঘরের ভেতরে তার স্ত্রী রিফা খাতুন গলায় ফাঁস দিয়ে ঝুলছেন। তার চিৎকারে প্রতিবেশীরা ছুটে এসে দরজা ভেঙে ভেতরে ঢুকে রাব্বিকেও মৃত অবস্থায় উদ্ধার করেন।
ওসি বলছেন, শনিবার সকালে খবর পেয়ে পুলিশ মরদেহ দুটি উদ্ধার করে। ধারণা করা হচ্ছে, ছেলেকে শ্বাসরোধ করে হত্যার পর মা গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছেন।

আরও পড়ুন