মণিরামপুরে ছাত্রীর ঝুলন্ত মরদেহ

আপডেট: 02:30:43 18/11/2019



img

মণিরামপুর (যশোর) প্রতিনিধি : যশোরের মণিরামপুরে সুরাইয়া খাতুন (১৩) নামে এক স্কুলছাত্রীর ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ।
রোববার রাতে রাজগঞ্জ পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের এসআই সাহাবুল আলম মরদেহ উদ্ধার করে। আজ সোমবার (১৮ নভেম্বর) সকালে পুলিশ ময়নাতদন্তের জন্য মরদেহ মর্গে পাঠিয়েছে।
সুরাইয়া উপজেলার হরিহরনগর ইউপির মদনপুর গ্রামের লিটন সরদারের মেয়ে। সে মদনপুর মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের সপ্তম শ্রেণির ছাত্রী। মায়ের ওপর অভিমান করে রোববার সন্ধ্যারাতে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছে সে।
স্থানীয় ইউপি সদস্য শামসুর রহমান জানান, রোববার সন্ধ্যায় সুরাইয়াদের বাড়ির পাশে একটি মসজিদে ওয়াজ মাহফিল হওয়ার কথা ছিল। বিকেলে সুরাইয়া পাড়ার অন্য মেয়েদের সঙ্গে মাহফিলের মাঠ ঝাড়ু দিচ্ছিল। সেখান থেকে তার মা নাজমা বেগম সুরাইয়াকে বাড়িতে ডেকে নিয়ে বেশ মারধর করেন। এরপর রাগ করে তিনি মেয়েকে ফেলে একই উপজেলার রাজবাড়িয়া গ্রামে বাপের বাড়িতে চলে যান। ওই সুযোগে নিজ পড়ার ঘরের আড়ায় ওড়না জড়িয়ে গলায় ফাঁস দেয় সুরাইয়া। খবর পেয়ে পুলিশ রাত ১১টার দিকে মরদেহ উদ্ধার করে।
এসআই সাহাবুল আলম বলেন, এই ঘটনায় থানায় অপমৃত্যু মামলা হয়েছে। মরদেহ উদ্ধার করে মর্গে পাঠানো হয়েছে। মেয়েটির আত্মহত্যার জন্য ওর মা দায়ী।

আরও পড়ুন