বেনাপোলে ১৩টি সোনার বারসহ যুবতী আটক

আপডেট: 08:32:29 29/09/2020



img

স্টাফ রিপোর্টার, বেনাপোল (যশোর) : যশোরের শার্শা সীমান্তে ১৩টি সোনার বারসহ (১ কেজি ৫২৬ গ্রাম) বারসহ পপি খাতুন (২৪) নামে এক নারীকে আটক করেছে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি)।
মঙ্গলবার সকাল নয়টার দিকে বেনাপোলের শিকড়ি বটতলা থেকে তাকে আটক করা হয়। বিকেল পাঁচটার দিকে প্রেস বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে বিজিবি বিষয়টি সংবাদকর্মীদের অবহিত করেন।
উদ্ধার করা সোনার বাজার মূল্য ৯১ লাখ ৫১ হাজার ৮০০ টাকা।
আটক পপি পুটখালী পশ্চিমপাড়া গ্রামের কামাল হোসেনের স্ত্রী।
খুলনা ২১ বিজিবি ব্যাটলিয়নের অধিনায়ক লে. কর্নেল মোহাম্মদ মনজুর-ই-এলাহী জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে শার্শার পাঁচভুলট বিওপির একটি টহল দল মঙ্গলবার সকাল নয়টার দিকে বেনাপোলের শিকড়ি বটতলা বালুরমাঠ ব্রিজের ওপর থেকে পপি খাতুন নামে এক যুবতীকে আটক করে। তার দেহ তল্লাশি করে এক কেজি ৫২৬ গ্রাম ওজনের ১৩টি সোনার বার পাওয়া যায়। যার আনুমানিক দাম ৯১ লাখ ৫১ হাজার ৮০০ টাকা। আটক নারীকে সোনার বারসহ বেনাপোল পোর্ট থানায় সোপর্দ করা হয়েছে।
এদিকে বিজিবির হাতে সোনাসহ নারী আটকের কথা স্থানীয় সংবাদকর্মীরা জানতে পেরে বেলা ১১টার দিকে সংশ্লিষ্ট ক্যাম্প এলাকায় যান। তারা বিষয়ে জানার জন্য পাঁচভুলোট ক্যাম্পের সামনে প্রায় তিন ঘণ্টা  অপেক্ষা করলেও বিজিবি সাংবাদিকদের কোনো তথ্য দেয়নি। এমনকি তাদের ক্যাম্পেও ঢুকতে দেয়নি।
বিজিবি পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, সংবাদ সংগ্রহ করতে অনেক সাংবাদিক আসায় করোনার কারণে কাউকে ভেতরে প্রবেশ করতে দেওয়া হয়নি।

আরও পড়ুন