বেনাপোলে রফতানি পণ্যবোঝাই ট্রাকের জট

আপডেট: 02:53:43 11/09/2021



img

স্টাফ রিপোর্টার, বেনাপোল (যশোর): বেনাপোল বন্দরে শত শত রফতানিপণ্য বোঝাই ট্রাক আটকা পড়েছে।
ব্যবসায়ীদের অভিযোগ, এই সংকট কৃত্রিমভাবে তৈরি করা হচ্ছে।
ভারতের পেট্রাপোল বন্দরে স্থান সংকট দেখা দেওয়ায় বেনাপোল বন্দর দিয়ে বাংলাদেশি পণ্য ভারতে রফতানিতে বড় ধরনের প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি হচ্ছে।
শনিবার (১১ সেপ্টেম্বর) সকাল সাতটায় বেনাপোল বন্দর এলাকায় দেখা যায়, ভারতে প্রবেশের অপেক্ষায় শত শত রফতানি পণ্যবোঝাই ট্রাক দাঁড়িয়ে রয়েছে। বেনাপোল বন্দরে রফতানি পণ্যের ট্রাক রাখার টারমিনাল না নেই। ফলে বন্দরের হাইওয়ে এবং বাইপাসসহ সব সড়কে সৃষ্টি হয়েছে ভয়াবহ যানজট। মানুষ চলাচলের রাস্তা পর্যন্ত নেই।
ভারতগামী যাত্রী সুভাষচন্দ্র বলেন, ‘বেনাপোল বাজার থেকে চেকপোস্ট মাত্র পাঁচ মিনিটের রাস্তা। অথচ এই রাস্তার যানজট পেরিয়ে আসতে আমার প্রায় দেড় ঘণ্টা সময় লেগেছে।’
স্থানীয় রাশেদ আলী বলেন, ‘দীর্ঘ দেড় বছর পর আগামীকাল শিক্ষার্থীদের স্কুল খুলছে। রাস্তায় যানজটের যে ভয়াবহ অবস্থা তাতে বাচ্চারা সঠিক সময়ে স্কুলে যেতে পারবে না।’
ব্যবসায়ীদের অভিযোগ, ভারতের পেট্রাপোল বন্দরে ইচ্ছে করেই স্থান সংকট সৃষ্টি করা হয়েছে। ভারত প্রতিদিন বাংলাদেশে ৪০০ থেকে ৫০০ ট্রাক পণ্য রফতানি করলেও বাংলাদেশি পণ্য নেওয়ার ক্ষেত্রে তারা বরাবরই প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি করে। গত চার দিনে রফতানি পণ্য নিয়ে অন্তত ৯০০টি ট্রাক বেনাপোল বন্দরে অপেক্ষা করছে। ভারত প্রতিদিন মাত্র ১৫০ ট্রাক রফতানি পণ্য গ্রহণ করছে। অপরদিকে, ভারত প্রতিদিন এই বন্দর দিয়ে বাংলাদেশে ৪০০ থেকে ৫০০ ট্রাক পণ্য রফতানি করছে।
বেনাপোল সিঅ্যান্ডএফ এজেন্টস অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি মফিজুর রহমান বলেন, ‘বর্তমানে বাংলাদেশ থেকে প্রতিদিন প্রচুর পরিমাণে সয়াবিন স্ট্রাকশন, চালের ভুসি রফতানি হচ্ছে ভারতে। ফলে প্রতিদিন এসব পণ্যবোঝাই প্রায় ৩০০টি ট্রাক ভারতে প্রবেশের জন্য বেনাপোল বন্দরে আসছে। কিন্তু ভারত প্রতিদিন নিচ্ছে মাত্র ১৫০ ট্রাক পণ্য। এই কারণেই এত ট্রাক বেনাপোলে আটকে থাকছে।’
বেনাপোল কাস্টম হাউসের কমিশনার মো. আজিজুর রহমান বলেন, ‘আজ শনিবার ভারতে রফতানির অপেক্ষায় প্রায় ৯০০ ট্রাক পণ্য রয়েছে বেনাপোল বন্দর এলাকায়। বিষয়টি সমাধানের জন্য আগামী সোমবার দুদেশের কাস্টমস, বন্দর, সিঅ্যান্ডএফ এজেন্টস অ্যাসোসিয়েশন ও ট্রান্সপোর্ট নেতাদের সমন্বয়ে উচ্চ পর্যায়ের বৈঠক হওয়ার কথা রয়েছে। যত দ্রুত সম্ভব এ ধরনের সমস্যার সমাধান করা হবে।’
তিনি জানান, গত বছরের তুলনায় এ বছর কয়েক গুণ বেশি পণ্য রফতানি হচ্ছে ভারতে।

আরও পড়ুন