বিএনপি নেতা ফেরদৌস হত্যায় পাঁচজন অভিযুক্ত

আপডেট: 10:35:55 17/05/2020



img
img

স্টাফ রিপোর্টার : যশোরে বিএনপি নেতা ফেরদৌস হোসেন হত্যা মামলায় পাঁচজনকে অভিযুক্ত করে চার্জশিট দিয়েছে পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন (পিবিআই)।
হত্যায় যুক্ত থাকার অভিযোগ প্রমাণিত না হওয়ায় মোতালেব হোসেন টুটুল নামে এক আসামিকে মামলা থেকে অব্যাহতি দেওয়ার আবেদন করা হয়েছে চার্জশিটে। তদন্ত শেষে আদালতে এ চার্জশিট জমা দিয়েছেন তদন্তকারী কর্মকর্তা স্নেহাশিষ দাস।
অভিযুক্তরা হলেন, শহরের লোহাপট্টির মৃত আনসার আলী বিশ্বাসের ছেলে ফারুক আহম্মেদ, ফারুকের স্ত্রী শিউলি বেগম, আবুল হোসেন ও তার স্ত্রী মমতাজ বেগম এবং ঝিকরগাছার কৃষ্ণনগর গ্রামের মৃত আব্দুল ওহাবের স্ত্রী ছালেহা খাতুন।
মামলার অভিযোগে বলা হয়, নিহত ফেরদৌস হোসেনের বাড়ি সদর উপজেলার বিরামপুরে। তিনি শহরের লোহাপট্টিতে ফারুক আহমেদের বাড়িতে ভাড়া থাকতেন। ২০১৬ সালের ২৩ মার্চ রাতে জেলা বিএনপির সাবেক সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক ফেরদৌস হোসেনকে শহরের লোহাপট্টিতে কুপিয়ে হত্যা করে একদল দুর্বৃত্ত।
এ ঘটনায় নিহতের স্ত্রী নাজমুন নাহার মুক্তি কোতয়ালী থানায় অপরিচিত ব্যক্তিদের আসামি করে হত্যা মামলা করেন। পরে নিহতের স্ত্রী আসামিদের শনাক্ত করতে পেরে আদালতে একটি অভিযোগে দেন।
মামলাটি প্রথমে থানা পুলিশ, পরে সিআইডি তদন্তের দায়িত্ব পায়। সবশেষে এ মামলাটি পিবিআই তদন্ত করে ওই পাঁচজনকে অভিযুক্ত করে আদালতে চার্জশিট জমা দিলো। চার্জশিটে অভিযুক্ত মমতাজ ও ছালেহাকে পলাতক দেখানো হয়েছে।
তদন্তকারী কর্মকর্তা স্নেহাশিষ দাস এই তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

আরও পড়ুন