পাইকগাছায় ছয় ডাকাত আটক

আপডেট: 06:49:37 12/01/2021



img

পাইকগাছা (খুলনা) প্রতিনিধি : কথিত আন্তঃজেলা ডাকাত দলের ছয় সদস্যকে আটক করেছে খুলনার পাইকগাছা থানা পুলিশ। বিভিন্ন জেলায় অভিযান চালিয়ে তাদের আটক করা হয়।
মঙ্গলবার (১২ জানুয়ারি) নিজ কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলন করে এ তথ্য জানান পাইকগাছা থানার ওসি এজাজ শফী।
আটক ব্যক্তিরা হলেন, উপজেলার গোপালপুর গ্রামের মিজানুর গাজীর ছেলে সাইদুল গাজী (২১), রাড়ুলী গ্রামের মৃত হাকিম গাজীর ছেলে ইমরান গাজী, রাড়ুলীর মকবুল গাজীর ছেলে বাপ্পি গাজী, গোপালপুর গ্রামের মৃত আকছেদ গাজীর ছেলে মেহেদী হাসান, গদাইপুর গ্রামের তাছের মোড়লের ছেলে আল-আমিন ও ফতেপুর গ্রামের খলিল গাজীর ছেলে তাকবির হোসেন।
সংবাদ সম্মেলনে তিনি বলেন, গত ১৪ ডিসেম্বর রাত দেড়টায় উপজেলার গদাইপুর কার্তিকের মোড়ে কিং ফিশার পরিবহনের একটি বাস থামিয়ে ডাকাতি করে দুর্বৃত্তরা। ডাকাতরা অস্ত্রের মুখে যাত্রীদের কাছ থেকে নগদ টাকা, স্বর্ণালংকারসহ সাত লাখ টাকার মালামাল লুট করে। ওই ঘটনায় পরের দিন বাসটির সুপারভাইজার আছাফুর রহমান বাদী হয় পাইকগাছা থানায় অজ্ঞাত চার ডাকাতের বিরুদ্ধে মামলা করেন। এরপর তথ্য প্রযুক্তির সহায়তায় পুলিশ সোমবার সকালে সাইদুল গাজী (২১) ও ইমরান গাজীকে (২১) মাদারীপুর সদর থানার একটি ইটভাটা থেকে আটক করা হয়। তাদের দেওয়া তথ্যানুযায়ী থানা পুলিশের একটি বিশেষ টিম একইদিন বিকেলে বাপ্পি গাজীকে (২১) ষষ্ঠিতলা বাজার, মেহেদী হাসানকে (২১) পিচেরমাথা, আল-আমিনকে (৩৫) পাইকগাছা বাজার এবং তাকবির হোসেনকে (২৩) ওয়াপদা রাস্তা থেকে আটক করা হয়।
ওসি আরো জানান, ধরা পড়া আল-আমিনের দেওয়া তথ্য অনুযায়ী গদাইপুর ইউপি চেয়ারম্যান গাজী জুনায়েদুর রহমান, ইউপি সদস্য শেখ জাকির হোসেন লিটন ও জবেদ আলী গাজীকে নিয়ে অস্ত্র উদ্ধারে গেলেও তার আগেই অস্ত্রগুলো সরিয়ে ফেলায় তা পাওয়া যায়নি।
ওসি এজাজ শফী বলেন, ধৃত ডাকাত দলের বিরুদ্ধে পাইকগাছা থানাসহ বিভিন্ন থানায় বিস্ফোরক, অস্ত্র, চুরি ও দস্যুতার মামলা রয়েছে।

আরও পড়ুন