ঝিনাইদহে গাছ চাপা পড়ে দম্পতি হতাহত

আপডেট: 05:27:32 21/05/2020



img

কালীগঞ্জ (ঝিনাইদহ) প্রতিনিধি : সুপার সাইক্লোন আম্পানে ঝিনাইদহে গাছ চাপা পড়ে এক নারীর মৃত্যু হয়েছে।
বুধবার দিবাগত রাত দুইটার দিকে সদর উপজেলার হলিধানী গ্রামে নাদেরা বেগম নামে ওই গৃহবধূ মারা যান। এছাড়া জেলার বিভিন্ন এলাকায় ঝড়ের তাণ্ডবে কমপক্ষে দশজন আহত হওয়া সংবাদ পাওয়া গেছে।
সাইক্লোনের আঘাতে জেলার ছয় উপজেলায় ফসলের ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। এছাড়া শত শত কাঁচা ও আধাপাকা ঘরবাড়ি ভেঙে গেছে। হাজার হাজার গাছ ভেঙে পড়েছে। বুধবার সন্ধ্যা থেকে বৃহস্পতিবার ভোর পর্যন্ত ঝড়ের তাণ্ডবে কৃষকের কলাগাছ, পাটক্ষেত, পানের বরজসহ সবজি নষ্ট হয়েছে। পানিতে ডুবে গেছে পাকা ধান। এছাড়াও নষ্ট হয়েছে আম ও লিচু। বৃষ্টির কারণে তলিয়ে গেছে পুকুর ও জলাশয়।
এদিকে বুধবার বিকেল থেকে পুরো ঝিনাইদহ জেলা বিদ্যুৎহীন রয়েছে। ৩৩ কেভি লাইন ফল করার কারণে বিদ্যুৎ বন্ধ রয়েছে বলে সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা জানিয়েছেন।
জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে ক্ষতিগ্রস্তদের ত্রাণ সামগ্রী ও প্রয়োজনীয় সহযোগিতা দেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন জেলা প্রশাসক সরোজকুমার নাথ।
ঝিনাইদহ ফায়ার সার্ভিস সূত্রে জানা গেছে, ঝড়ের রাতে সদর উপজেলার হলিধানী গ্রামে বুদোই মণ্ডল ও স্ত্রী নাদেরা বেগম ঘরের বারান্দায় ঘুমিয়ে ছিলেন। রাত দুইটার দিকে শতবর্ষী একটি বটগাছ উপড়ে তাদের ঘরের ওপর পড়ে। এতে স্ত্রী নাদেরা বেগম সেখানেই মারা যান। আহত হয়ে স্বামী সেখানে আটকা পড়ে ছিলেন। খবর পেয়ে সকালে ঝিনাইদহ ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা ঘটনাস্থলে গিয়ে গাছ কেটে হতাহত দম্পতিকে উদ্ধার করেন।
এছাড়া জেলার বিভিন্ন এলাকায় গাছ পড়ে সড়কে চলাচল বন্ধ হয়ে গেছে। ভোররাত থেকে সেগুলো পরিষ্কার করছেন ফায়ার সার্ভিস কর্মীরা।

আরও পড়ুন