ঝিনাইদহের ক্ষুধাজয়ী ১৫ নারী

আপডেট: 02:37:47 24/11/2020



img

তারেক মাহমুদ, কালীগঞ্জ (ঝিনাইদহ): দারিদ্র্যের সঙ্গে যুদ্ধ করেই শৈশব আর কৈশোর পেরুতে হয়েছে তাদের। দিন কেটেছে খেয়ে না খেয়ে। খুব অল্প বয়সে বিয়ের পিঁড়িতে বসতে হয়। স্বপ্ন ছিল, স্বামীর সংসারে হয়তো সুখের দেখা মিলবে। কিন্তু মেলেনি। যুদ্ধ শুরু দারি্দ্র্যের সঙ্গে। এখন সবাই স্বাবলম্বী।
প্রায় একই রকম গল্প ছিল সবারই। এরকম ১৫ ক্ষুধাজয়ী নারীকে খুঁজে বের করেছে জাপানভিত্তিক স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন হাঙ্গার ফ্রি ওয়ার্ল্ড।
তারা হলেন কালীগঞ্জ উপজেলার নিয়ামতপুরের রেনুকা আক্তার, মস্তবাপুরের মারুফা খাতুন ও তহমিনা বেগম, অনুপমপুরের মুন্নি ও জোসনা বেগম, মহেশ্বরচাদার মঞ্জুরা রানী, মল্লিকপুরের স্বপ্না খাতুন ও রুপভান বেগম, আগমুন্দিয়ার ফারহানা বেগম, বলরামপুরের আসমানি দেবনাথ ও রেকসনা বেগম, ভোলপাড়ার ফাতেমা বেগম, হরিগোবিন্দপুরের আসমা বেগম এবং আড়ুয়াশলুয়ার রিজিয়া ও রিনা বেগম।
নিজেদের অজান্তেই তারা টেকসই উন্নয়ন, জৈব চাষ, আত্মকর্মসংস্থান সৃষ্টি, পরিবেশ সুরক্ষা, নারীর ক্ষমতায়ন, যুব উন্নয়ন তথা আর্থ সামাজিক উন্নয়ন এবং ক্ষুধা ও দারিদ্র্য অবসানে অবদান রেখে চলেছেন।
ক্ষুধামুক্ত বাংলাদেশ গড়তে অবদান রাখায় এসব নারীদের সম্মাননা দেবে সংগঠনটি। ২৫ নভেম্বর আনুষ্ঠানিকভাবে জেলার কালীগঞ্জ শহরের বলিদাপাড়ায় সংগঠনের নিজস্ব কার্যালয়ে ক্রেস্ট ও নগদ অর্থ তাদের হাতে তুলে দেওয়া হবে।

আরও পড়ুন