কেশবপুরে দোকানপাট বন্ধ, জনসচেতনতায় সেনাবাহিনী

আপডেট: 03:38:33 26/03/2020



img
img

কেশবপুর (যশোর) প্রতিনিধি : কেশবপুর শহরে মুদি ও ওষুধের দোকান ছাড়া সব ব্যবসা প্রতিষ্ঠান বন্ধ রয়েছে। জনচলাচলও সীমিত হয়ে গেছে।
জনগণের মধ্যে সচেতনতা বাড়াতে উপজেলা প্রশাসনের সঙ্গে কাজ করছে সেনাবাহিনী। গরিবদের মধ্যে মাস্ক বিতরণ ও অন্যদের মাস্ক পরতে বাধ্যও করা হচ্ছে। এছাড়া ফায়ার সার্ভিস শহরের রাস্তায় পানির সঙ্গে জীবাণুনাশক ছেটাচ্ছে।
বৃহস্পতিবার সকালে কেশবপুর শহরে উপজেলা প্রশাসনের সঙ্গে সেনাবাহিনী জনসচেতনতামূলক কাজ শুরু করে। সকাল সাড়ে নয়টার দিকে শহরের মাছবাজারে ওজনে কম দেওয়ায় শামসুর রহমান নামে এক মাছ ব্যবসায়ীকে মোবাইল কোর্ট বসিয়ে জরিমানা করা হয়।
এই বিষয়ে উপজেলা নির্বাহী অফিসার নুসরাত জাহান বলেন, ওই মাছ ব্যবসায়ী প্রদত্ত মূল্যের বিনিময়ে প্রতিশ্রুত পণ্য বিক্রি বা সরবরাহ না করে ভোক্তা-অধিকার সংরক্ষণ আইন ২০০৯ এর ৪৫ ধারা লঙ্ঘন করেছেন। সেই কারণে তাকে পাঁচ হাজার টাকা জরিমানা করে তা আদায় করা হয়েছে।
পরে উপজেলা প্রশাসন ও সেনাবাহিনীর যৌথ টিম উপজেলার বিভিন্ন হাটবাজারে গিয়ে জনসাধারণকে মাস্ক ব্যবহারে বাধ্য করে।
বেলা সাড়ে এগারোটায় শহরের গাজির মোড়ে ক্যাপ্টেন সাইফুলের নেতৃত্বে সেনাসদস্যর রাজপথে চলাচলকারীদের বাড়িতে ফেরত পাঠায়। ওই সময় গরিব পথচারী, বৃদ্ধ ভ্যানচালকদের বিনা মূল্যে মাস্ক সরবরাহ করেন সেনাসদস্যরা।
এদিকে, দুপুর ১২টার পর ফায়ার সার্ভিস অ্যান্ড সিভিল ডিফেন্স কেশবপুর শহরের বিভিন্ন সড়কে জীবাণুনাশক পানি ছেটায়।
ফায়ার সার্ভিসের কেশবপুর স্টেশন কমান্ডার হুমায়ুন কবির বলেন, জেলা প্রশাসকের নির্দেশে আজ সকাল থেকে এই কাজ করা হচ্ছে।
অন্যদিকে, শহরের ওষুধ ও মুদি দোকান ছাড়া সব ব্যবসা প্রতিষ্ঠন বন্ধ রয়েছে।

আরও পড়ুন