কর্মহীনদের পাশে বাঘারপাড়ার তরুণ শিক্ষক মেহেদী

আপডেট: 04:59:42 16/04/2020



img

চন্দন দাস, বাঘারপাড়া (যশোর) : কর্মহীন হয়ে পড়া ঘরবন্দি মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছেন যশোরের বাঘারপাড়া পৌর এলাকার বাসিন্দা তরুণ স্কুলশিক্ষক মেহেদী খন্দকার।
করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাব শুরু হওয়ার বেশ কিছুদিন পর থেকে ঘুরে ঘুরে সচেতনতামূলক লিফলেট, মাস্ক ও সাবান বিতরণ করছেন তিনি। পৌর এলাকার একহাজার হতদরিদ্র ও নিম্নবিত্তের তালিকা তৈরি করে বাড়ি বাাড়ি পৌঁছে দিচ্ছেন খাদ্যসামগ্রী। তার খাদ্যদ্রব্যের প্যাকেজে রয়েছে আটা, ডাল, আলু, মরিচ, পেঁয়াজ, লবণ, পটল ও মিষ্টি কুমড়া।
সপ্তাহখানেক আগে এ কার্যক্রম শুরু করেন তিনি। বাঘারপাড়া পৌরভার বিভিন্ন ওয়ার্ডে মোট এক হাজার পরিবারের মাঝে খাদ্যসামগ্রী বিতরণের পরিকল্পনা রয়েছে তার। তালিকা অনুযায়ী বৃহস্পতিবার (১৬ এপ্রিল) পর্যন্ত পৌরসভার ১, ২, ৩, ৫ ও ৮ নম্বর ওয়ার্ডে কর্মহীন হয়ে পড়া হতদরিদ্র ও নিম্নমধ্যবিত্ত পরিবারের মাঝে খাদ্যসামগ্রী পৌঁছে দেওয়া হয়। বাকি এলাকায় পর্যায়ক্রমে খাদ্যসামগ্রী পৌঁছে দেওয়া হবে বলে জানান মেহেদীর ঘনিষ্ঠজনরা।
এ ব্যাপারে তরুণ শিক্ষক মেহেদী খন্দকার বলেন, ‘সবাইকে তো দিতে পারবো না! আমার সামর্থ কম। তবুও যতদূর পারি-চেষ্টা করে যাব। এই দুর্যোগে কর্মহীন ঘরবন্দি মানুষের পাশে থাকাটাই বড় কথা; সেটা হোক স্বল্প পরিসরে। সাধ্য অনুযায়ী আমি চেষ্টা করছি কর্মহীন মানুষের পাশে থাকার। আমার এ কার্যক্রম অব্যাহত থাকবে।’
মেহেদী খন্দকারের এধরনের সামাজিক কর্মকাণ্ড নতুন নয়। শীতে দুস্থদের মাঝে কম্বল বিতরণ ও শিক্ষার্থীদের মাঝে শিক্ষা উপকরণ বিতরণসহ বিভিন্ন সময় নানা সামাজিক কাজে দেখা যায় তাকে।
যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় থেকে কম্পিউটার সায়েন্স অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ারিংয়ে লেখাপড়া করেছেন মেহেদী। বর্তমানে বাঘারপাড়া উপজেলার মাহমুদপুর নিম্ন মাধ্যমিক বালিকা বিদ্যালয়ে আইসিটি শিক্ষক হিসেবে কর্মরত রয়েছেন তিনি।

আরও পড়ুন