এনজিও কর্মী পরিচয়ে শিশু চুরি

আপডেট: 10:37:50 20/01/2021



img

স্টাফ রিপোর্টার, বেনাপোল (যশোর) : শার্শা উপজেলার বাগআঁচড়ায় এনজিও কর্মী পরিচয় দিয়ে সরকারি অনুদানের প্রলোভন দেখিয়ে এক নারীর ২৫ দিনের পুত্র সন্তান চুরির ঘটনা ঘটেছে।
বুধবার দুপুর ১২টার দিকে ঘটনাটি ঘটে শার্শা উপজেলার বাগআঁচড়া বাজারের রিফাত হোটেলে। ভিডিও ফুটেজে এক নারীকে ওই শিশুটি নিয়ে যেতে দেখা গেলেও বোরখাপরা ও মুখ ঢাকা থাকায় শনাক্ত করা সম্ভব হয়নি। বিষয়টি শার্শা থানা পুলিশকে জানানো হলেও এখন পর্যন্ত ওই চোরকে শনাক্ত ও শিশুটিকে উদ্ধার করতে পারেনি।
চুরি যাওয়া শিশু তাসিনের মা জান্নাতুল বেগমের বাড়ি উপজেলার কায়বা ইউনিয়নের রুদ্রপুর গ্রামে। তিনি ওই গ্রামের আশরাফুলের স্ত্রী।
শিশুটির মা জান্নাতুল জানান, তাসিন গর্ভে থাকার সময় নাম ঠিকানা না জানা অজ্ঞাত এক মহিলা এনজিও কর্মী পরিচয় দিয়ে তাদের বাসায় গিয়ে গর্ভবতী কার্ড করে দিবে বলে প্রলোভন দেখায়। বাচ্চা ভূমিষ্ট হওয়ার পর আরো একদিন এসে একই কথা বলেন। ওই মহিলা বুধবার দুপুরে তাদের বাড়ি গিয়ে ৩০ হাজার টাকা দেবে বলে তাকে ও তাসিনের দাদা জোহর আলীকে বাগআঁচড়া বাজারে নিয়ে যায়। এক পর্যায়ে উভয়ে নাস্তা করার জন্য বাগআঁচড়া বাজারের শংকরপুর সড়কে রিফাত নামের একটি হোটেলে নিয়ে যায়। শিশুটিকে কোলে নিয়ে তাদের দু‘জনকে হাত ধুয়ে আসার জন্য পাঠায়। এই সুযোগে মহিলাটি বাচ্চাকে নিয়ে পালিয়ে যায়। বেশ কিছুক্ষণ পার হলেও হোটেলের চারপাশ এবং মেইন সড়কগুলো খুঁজেও সন্তান ও ওই নারীকে পাওয়া যায়নি।
তাদের বহনকারী ভ্যানচালক হাকিম বলেন, মহিলাটি কলারোয়া থানার গয়ড়া বাজার থেকে তাকে ভাড়া করে। প্রথমে তাকে রুদ্রপুর গ্রামের জোহর আলীর বাড়িতে এরপর এদের নিয়ে বাগআঁচড়া বাজারে যায়। তবে সে মহিলাটিকে চেনে না। তার গায়ে কফি কালারের বোরখা ও পেস্ট কালারের ওড়না ছিলো।
বাগআঁচড়া পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের অফিসার ইনচার্জ উত্তম কুমার জানান, ঘটনা তিনি শুনেছেন। বিষয়টি তদন্ত করা হচ্ছে। ভিডিও ফুটেজে ওই নারীকে দেখা গেছে। শনাক্ত করা সম্ভব হয়নি। পুলিশ বিভিন্ন জায়গায় খোঁজাখুঁজি করছে।

আরও পড়ুন