ইমু হত্যার দায় স্বীকার করে জবানবন্দি

আপডেট: 08:40:50 21/09/2020



img

স্টাফ রিপোর্টার : উপশহরের এহসানুল হক ইমু হত্যার ‘দায় স্বীকার’ করেছে মো. আসিফ হাসান (২০) নামে এক যুবক। পিবিআই যশোরের পুলিশ সুপার রেশমা শারমিন আজ এই তথ্য দিয়েছেন।
তিনি জানান, রোববার বিকেলে সদর উপজেলার সাতমাইল নওদাগ্রামে মামা লিটনের বাড়ি থেকে গ্রেফতার করা হয় আসিফকে। জিজ্ঞাসাবাদে তিনি ইমু হত্যায় জড়িত থাকার কথা স্বীকার করে।
পরে সোমবার তাকে আদালতে হাজির করা হলে জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মো. সাইফুদ্দীন হোসাইনের সামনে সে ফৌজদরি কার্যবিধর ১৬৪ ধারা মোতাবেক স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দিও দেয়।
আসিফ হাসান যশোর শহরের পুরাতন কসবা বিবি রোডের মোহাম্মদ বাবুর ছেলে বলে জানিয়েছেন মামলাটির তদন্ত কর্মকর্মা পিবিআইয়ের এসআই স্নেহাশিস দাশ।
একদল দুর্বৃত্ত গত ২১ জুন উপশহর খাজুরা বাসস্ট্যান্ডের কাছে শিশু হাসপাতালের সামনে এহসানুল হক ইমু নামে এক যুবককে কুপিয়ে হত্যা করে। পরদিন এই ব্যাপারে কোতয়ালী থানায় হত্যা মামলা হয়। ২৩ জুন পিবিআই স্বউদ্যোগে মামলাটি তদন্তের দায়িত্ব নেয়। গ্রেফতার করে বেশ কয়েকজনকে। তারা গ্রেফতার আসামির স্বীকারোক্তি অনুযায়ী হত্যায় ব্যবহৃত রাম দাও উদ্ধার করে পুরাতন কসবায় অবস্থিত শিশু একাডেমি চত্বর থেকে
হত্যাকাণ্ডে জড়িত অন্য আসামিদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে বলে জানান এসপি রেশমা শারমিন।

আরও পড়ুন