অষ্টম শ্রেণি পাশ যখন মেডিকেলের সহ-অধ্যাপক

আপডেট: 02:54:40 19/04/2017



img
img

মাগুরা প্রতিনিধি : মাগুরায় অষ্টম শ্রেণি পাশ এক ভুয়া নিউরো মেডিসিন বিশেষজ্ঞ ও ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের সহকারী অধ্যাপককে এক বছরের কারাদণ্ডাদেশ দিয়েছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। আদালতের ম্যাজিস্ট্রেট দীপককুমার দেবশর্মা বুধবার দুপুরে এ আদেশ দেন।
নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট দীপক শর্মা জানান, ঢাকা মেডিকেলের সহকারী অধ্যাপক, বিসিএস ও নিউরো মেডিসিন বিশেষজ্ঞ পরিচয়দানকারী খোরশেদ আলম ঢাকা মেডিকেল থেকে এমবিবিএস ও এফসিপিএস মেডিসিন, এমডি নিউরোলজি এবং লন্ডন থেকে এফআরসিপি ডিগ্রি অর্জন করেছেন বলে দাবি করেন। রোগীদের ব্যবস্থাপত্রেও তিনি এ সব ডিগ্রি উল্লেখ করেন। এ পরিচয়ে দেড় মাস ধরে তিনি মাগুরা শহরের ‘গ্রামীণ মেডিকেল সার্ভিসেস’ নামে একটি চিকিৎসাকেন্দ্রে রোগী দেখে আসছেন।
তবে যাচাই-বাছাই করে দেখা গেছে, তার সব সনদপত্রই ভুয়া। যে কারণে ভ্র্যামমাণ আদালতের মাধ্যমে তাকে এক বছরের কারাদ- প্রদান করা হয়েছে। পুলিশ তাকে জেলহাজতে পাঠিয়েছে।
মাগুরার সিভিল সার্জন অফিসের মেডিকেল অফিসার সুব্রত বিশ্বাস জানান, তারা খোঁজ খবর নিয়ে জানতে পেরেছেন খোরশেদ আলম অষ্টম শ্রেণি পাশ। এর অগে তিনি ভুয়া ডাক্তার হিসেবে ধরা পড়ে কুমিল্লায় ছয় মাস জেল খেটেছেন।
ডা. সুব্রত জানান, এ ঘটনার পরে তারা সিভিল সার্জন অফিস থেকে সব ক্লিনিক, ডায়াগনস্টিক সেন্টারকে বহিরাগত চিকিৎসকদের কাগজপত্র জমা দেওয়ার নির্দেশনা দেবেন।

আরও পড়ুন