সৌদি গিয়ে ২৯ দিনেই লাশ চৌগাছার আনিছুর

আপডেট: 06:37:37 20/04/2018



img

চৌগাছা (যশোর) প্রতিনিধি : পরিবারে সচ্ছলতা ফেরাতে সৌদি আরবে গিয়েছিলেন চৌগাছার যুবক আনিছুর রহমান (২৮)। ভাগ্যের কী নির্মম পরিহাস! মাত্র ২৯ দিনেই লাশ হয়েছেন তিনি।
আনিছুর যশোরের চৌগাছা উপজেলার ধুলিয়ানি ইউনিয়নের ফতেপুর গ্রামের আহাম্মদ আলীর ছেলে।
স্ত্রী আকলিমা খাতুন জানান, তার স্বামী গ্রামের জহুর আলী ওরফে ঝোড়োর ছেলে সৌদি প্রবাসী ওহিদুল ইসলামের মাধ্যমে গত ২১ মার্চ সৌদি আরব যান। সেখানে তিনি দালালের মাধ্যমে কনস্ট্রাকশন কোম্পানিতে লেবার হিসেবে কাজ পান। ১৯ এপ্রিল বৃহস্পতিবার একটি পাঁচ তলা বিল্ডিংয়ে কাজ করার সময় পড়ে গিয়ে ঘটনাস্থলেই মারা যান তিনি।
আকলিমা বলেন, ‘সেখানে থাকার জন্য দালালরা এক মাসেও বৈধ কাগজপত্র করে দেননি আমার স্বামীকে। এখন আমার লাশ কবে, কীভাবে দেশে আসবে তাও বলতে পারছি না।’
কান্নার তোড়ে এর বেশি কথা বলতে পারেননি গৃহবধূ আকলিমা; যার পাঁচ ও দুই বছর বয়সী দুটি ছেলে রয়েছে।
নিহতের বাবা আহাম্মদ আলী বলেন, ‘একে তো অভাবের সংসার, তার ওপর ছেলের স্ত্রী ও দুই সন্তানের বোঝাও আমার কাঁধে পড়লো। দায়-দেনা করে ছেলেকে বিদেশ পাঠিয়েছিলাম সংসারে একটু সচ্ছলতা আসবে- এই ভেবে। এখন আমার দিন কীভাবে চলবে?’
আনিছুরের মা ফাতাসি বেগম ছেলের শোকে বারবার মূর্ছা যাচ্ছেন। শোকগ্রস্ত এই জননী গণমাধ্যমকে কোনো বক্তব্য দিতে পারেননি।
ধুলিয়ানি ইউপি চেয়ারম্যান আতিয়ার রহমান সৌদিতে তার এলাকার আনিছুর নামে এক যুবকের মৃত্যুর তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

আরও পড়ুন