চাপে শ্রীলঙ্কা

আপডেট: 12:46:15 17/03/2018



img

সুবর্ণভূমি ডেস্ক : স্বাগতিক শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে নিদাহাস ট্রফির লড়াইয়ে প্রেমাদাসায় মুখোমুখি হয়েছে বাংলাদেশ। ষষ্ঠ ওভারের প্রথম বলেই সানাকাকে গোল্ডেন ডাকের স্বাদ উপহার দিয়ে সাজঘরের পথ দেখিয়েছেন মুস্তাফিজুর রহমান। এর আগে শ্রীলঙ্কা শিবিরে দ্বিতীয় আঘাত হানার পর মুস্তাফিজুর রান আউটের ফাঁদে ফেলেছিলেন উপল থারাঙ্গাকেও। এই প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত ছয় ওভার শেষে স্বাগতিকদের সংগ্রহ ৪ উইকেট হারিয়ে ৩৫ রান।
এর আগে প্রায় দেড় মাস পর দলে ফিরেই নিজের দ্বিতীয় ওভারের প্রথম বলেই দানুশকা গুনাথিলাকাকে ফিরিয়েছিলেন বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার। সাকিবের বলে সাব্বির রহমানের হাতে ক্যাচ দিয়েছেন লঙ্কান উদ্বোধনী ব্যাটসম্যান।   
এর আগে ‘অঘোষিত সেমিফাইনালের’ লড়াইয়ে একাদশে ফিরেছিলেন নিয়মিত অধিনায়ক সাকিব আল হাসান। ফিরেই টসটাও জিতেছিলেন বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার। টস জিতে বোলিং বেছে নিয়েছেন বাংলাদেশ অধিনায়ক। একাদশে সাকিবের অন্তর্ভুক্তিতে বাদ পড়েছেন আবু হায়দার রনি। দলের বাকি জায়গাগুলো রয়েছে অপরিবর্তিতই।
অন্যদিকে শ্রীলঙ্কা দল নেমেছে দুটি পরিবর্তন নিয়ে। সুরাঙ্গা লাকমলের পরিবর্তে দলে এসেছেন পেসার ইসুরু উদানা। অন্যদিকে দুষ্মন্থ চামিরার বদলে দলে ঢুকেছেন বাঁহাতি স্পিনার আমিলা আপোন্সো।   
ম্যাচ শুরুর আগে কলম্বোর আবহাওয়া অধিদপ্তর বলছে ম্যাচ চলাকালে থাকছে বৃষ্টি হওয়ার সম্ভাবনা। সমান দুই পয়েন্ট পেলেও বাংলাদেশ দল রানরেটে পিছিয়ে রয়েছে টেবিলের তলানিতে। যদি বৃষ্টির কারণে খেলা মাঠে না গড়ায় তবে রানরেটে এগিয়ে থাকার সুবাদে ফাইনাল খেলবে স্বাগতিকরাই।
ফাইনালে ওঠার লড়াইয়ের আগে স্বাগতিকদের চেয়ে মানসিকভাবে একটু এগিয়ে থেকেই মাঠে নামছে বাংলাদেশ। ঘরের মাঠে টি-টোয়েন্টি সিরিজ হারলেও বাংলাদেশ মাঠে নামা শেষ লড়াইয়ে শ্রীলঙ্কা হারিয়েছে রেকর্ড গড়েই।
নিদাহাস ট্রফিতে নিজেদের দ্বিতীয় ম্যাচে মুশফিকের ব্যাটে চড়ে ২১৪ রানের পাহাড় বাংলাদেশ টপকেছিল দুই বল হাতে রেখেই। অবশ্য পরিসংখ্যানটা পরিষ্কার কথা বলছে শ্রীলঙ্কার হয়েই। মুখোমুখি হওয়া দশ ম্যাচের সাতটিতেই জিতেছে লঙ্কানরা। বাংলাদেশের জয় তিনটিতে।
চার ম্যাচে তিন জয় নিয়ে ভারত আগেই নিশ্চিত করে ফেলেছে ফাইনাল। ত্রিদেশীয় টি-টোয়েন্টি সিরিজের ফাইনালে ভারতের প্রতিপক্ষ কে হচ্ছে সেটা জানা যাবে এই ম্যাচের পরেই। ১৮ মার্চ মাঠে গড়াবে নিদাহাস ট্রফির ফাইনাল ম্যাচটি।
বাংলাদেশ একাদশ :  সাকিব আল হাসান (অধিনায়ক), তামিম ইকবাল, সৌম্য সরকার, মুশফিকুর রহিম, মাহমুদউল্লাহ, লিটন দাস, সাব্বির রহমান, মেহেদী হাসান মিরাজ, রুবেল হোসেন, নাজমুল ইসলাম অপু ও মুস্তাফিজুর রহমান।
সূত্র : এনটিভি

আরও পড়ুন