যশোর চেম্বারের সাবেক সভাপতি মিজান জেলে

আপডেট: 07:13:29 23/04/2018



img

স্টাফ রিপোর্টার : নাশকতা পরিকল্পনার মামলায় যশোর চেম্বার অব কমার্সের সাবেক সভাপতি জেলা বিএনপির যুগ্ম সম্পাদক মিজানুর রহমান খান মিজানকে জেলহাজতে পাঠিয়েছেন আদালত।
আজ সোমবার সকালে তিনি যশোর জেলা ও দায়রা জজ আদালতে আত্মসমর্পণ করলে বিচারক মো. আমিনুল ইসলাম তাকে জেলহাজতে পাঠানোর আদেশ দেন। ২০১৫ সালে যশোর কোতয়ালী থানার এসআই আলী আকবর মামলাটি করেছিলেন (মামলা নম্বর ৮০, ১৯/১১/১৫)।
মামলার বিবরণে বলা হয়, বিরোধী দলের হরতালকে সফল করতে বিএনপি, জামায়াত-শিবিরের নেতা-কর্মীরা ২০১৫ সালের ১৯ নভেম্বর যশোর শহরের কাঠেরপুল এলাকায় সশস্ত্র মিছিল করছিল বলে খবর পেয়ে সেখানে পুলিশ অভিযান চালায়। সেখান থেকে যশোর সদর উপজেলার বিএনপির সভাপতি মোহাম্মদ নূরুন্নবীসহ চারজনকে আটক করা হয়। ঘটনাস্থল থেকে পুলিশ চারটি পেট্রোলবোমা, দশটি বাঁশের লাঠি ও দশ জোড়া পুরনো স্যান্ডেল উদ্ধারের দাবি করে। পরে আটকদের জিজ্ঞাসাবাদের পর ওই চারজনসহ মোট ২৩ জনের বিরুদ্ধে নাশকতা পরিকল্পনা ও বিস্ফোরক বহনের দায়ে মামলাটি করা করা হয়। মিজানুর রহমান খান এ মামলার ছয় নম্বর আসামি।
তবে, বিএনপি নেতারা বলছেন, সরকারবিরোধী আন্দোলন দমনের জন্য সরকারি পরিকল্পনার অংশ হিসেবে পুলিশের রুজু করা সিরিজ মামলার একটি হলো ওই মামলাটি। এভাবে ‘মিথ্যা মামলায়’ একের পর এক নেতাকর্মীদের জেলে নিয়ে আন্দোলন বন্ধ করা যাবে না বলে অভিমত দলটির নেতাদের।

আরও পড়ুন