যশোরে দুই নারীসহ তিনজন ছুরিকাহত

আপডেট: 10:53:47 15/09/2018



img
img
img

স্টাফ রিপোর্টার : যশোরে পারিবারিক কলহ, মাদক ব্যবসা ও আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে বিরোধে দুই নারীসহ তিনজনকে ছুরি মেরেছে প্রতিপক্ষ। আহত তিনজনই জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।
ঘটনাটি ঘটেছে আজ শনিবার সন্ধ্যায় শহরের রেলগেট ইসমাইল কলোনি এলাকায়।
আহতরা হলেন সাগর হোসেন (২৫), জাহানারা বেগম (৬৫) এবং লেবু বেগম (৬৫)।
সাগর হোসেন রেলগেট তুলোতলা এলাকার আব্দুল আলিম ওরফে ঢ্যাবার ছেলে; জাহানারা বেগম একই এলাকার ফারুক হোসেনের স্ত্রী; আর লেবু বেগম ওই এলাকার আব্দুস সাত্তারের স্ত্রী।
সাগরের বাবা আব্দুল আলিম ওরফে ঢ্যাবা সুবর্ণভূমিকে বলেন, ‘আমার ছেলে চাঁচড়ায় পোনা মাছের ব্যবসা করে। পূর্বশত্রুতা ও পারিবারিক কলহের কারণে এলাকার শাহাদৎ হোসেন, জুয়েল, অনিক, কালু ও ইবাদত মিলে আমার ছেলেকে এলোপাতাড়ি ছুরি মেরেছে। পরে আমরা খবর পেয়ে সাগরকে উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করেছি।’
জাহানারা বেগমের মেয়ে মাকসুদা আকতার মেরি সুবর্ণভূমিকে বলেন, ‘পূর্বশত্রুতার কারণে সাগর, তার বাবা আব্দুল আলিম ঢ্যাবা, লিপু ও সোহেল মিলে আমার মা জাহানারা বেগম ও প্রতিবেশী চাচি লেবু বেগমের বুকে ছুরি মেরেছে।’
স্থানীয় একটি সূত্র সুবর্ণভূমিকে জানিয়েছে, সাগর একই এলাকার জাহানারা বেগমের মেয়ে জান্নাতি আকতার টুম্পাকে বিয়ে করেন। এরা সবাই মাদক ব্যবসায়ী। মাদক ব্যবসাকে কেন্দ্র করে দুই পরিবারের মধ্যে দীর্ঘদিনের বিরোধ। আজ দুই পক্ষই ছুরি নিয়ে প্রতিপক্ষকে আক্রমণ করেছে।
হাসপাতালের জরুরি বিভাগের ডাক্তার এম আব্দুর রশিদ সুবর্ণভূমিকে বলেন, ছুরিকাঘাতে আহত তিনজনের অবস্থাই খারাপ। এর মধ্যে জাহানারা বেগম ও সাগরের অবস্থা খুবই আশঙ্কাজনক। তাদের শরীর থেকে প্রচুর রক্তক্ষরণ হয়েছে।
কোতয়ালী থানার ওসি অপূর্ব হাসান সুবর্ণভূমিকে বলেন, ‘আমি ঘটনাস্থলে আছি। ঘটনার সাথে জড়িতদের আটকের জন্য পুলিশ জোর চেষ্টা করছে।’

আরও পড়ুন