যশোরে হোটেল ও ভেজাল কারবারিকে জরিমানা

আপডেট: 09:15:00 13/03/2018



img

স্টাফ রিপোর্টার : যশোরে ভ্রাম্যমাণ আদালত অভিযান চালিয়ে দুই ব্যক্তিকে ১৮ হাজার টাকা জরিমানা করে তা আদায় করেছেন।
নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট কেএম আবু নওশাদ ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট প্রীতম সাহা মঙ্গলবার বিকেলে শহরের বকচর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের পাশে রাজিব হাসান রাজুর বসতঘরে ও মণিহার প্রেক্ষাগৃহের পাশে মাসুদ খাবারের হোটেলে এই জরিমানা আদায় করেন।
ভ্রাম্যমাণ আদালতের পেশকার মো. জালাল উদ্দিন সুবর্ণভূমিকে জানান, বকচরে রাজিব হাসান নামে এক ব্যক্তি নিজ বসতঘরে লুব্রিকেন্ট নকল করতেন। সেখানে অভিযান চালিয়ে নামী কোম্পানির লুব্রিকেন্টের অনেক খালি কন্টেইনার উদ্ধার করা হয়; যেগুলোতে নকল লুব্রিকেন্ট ঢুকিয়ে বাজারজাত করা হতো। এই অপরাধে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট কেএম আবু নওশাদ বসতঘরের মালিক রাজিব হাসানকে ২০০৯ সালের জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ আইনের  ৫০ ধারায় দশ হাজার টাকা জরিমানা করে তা আদায় করেন।
এদিকে ভ্রাম্যমাণ আদালত মণিহার প্রেক্ষাগৃহের পাশে মাসুদ খাবারের হোটেলে নোংরা ও অস্বাস্থ্যকর পরিবেশ দেখতে পান। এই অপরাধে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট প্রীতম সাহা হোটেল ম্যানেজার হাবিবুর রহমান হাবিবকে ২০০৯ সালের জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ আইনের ৪৩ ধারায় আট হাজার টাকা জরিমানা করে তা আদায় করেন।
অভিযানকালে জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর যশোরের সহকারী পরিচালক মো. সোহেল শেখ ও পুলিশ সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।