বিশাল গাড়িবহর নিয়ে মণিরামপুরে ফারুক

আপডেট: 09:55:14 14/03/2018



img
img

মণিরামপুর (যশোর) প্রতিনিধি : আওয়ামী লীগ মণিরামপুর উপজেলা কমিটির নবনিযুক্ত সাধারণ সম্পাদক ফারুক হোসেন বলেছেন, ‘জননেত্রী শেখ হাসিনা আমার ওপর যে দায়িত্ব দিয়েছেন, তা আমি অক্ষরে অক্ষরে পালন করব। আমার বাবা মরহুম গোলাম মোস্তফা দীর্ঘদিন ধরে মণিরামপুরে তার ওপর অর্পিত সাধারণ সম্পাদকের দায়িত্ব অত্যন্ত নিষ্ঠা ও সততার সাথে পালন করেছেন। আমিও আমার ওপর অর্পিত দায়িত্ব যেন সততা ও নিষ্ঠার সাথে পালন করতে পারি সেই ব্যাপারে আপনাদের সহযোগিতা কামনা করছি। আমি আওয়ামী লীগের একজন কর্মী হিসাবে আপনাদের পাশে থাকতে চাই।’
বুধবার সন্ধ্যায় মণিরামপুর উপজেলা আওয়ামী লীগ কার্যালয়ের সামনে দলের নেতাকর্মীরা ফারুক হোসেনকে ফুল দিয়ে বরণ করে নেন। সেখানে সংক্ষিপ্ত বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।
তিনি বলেন, ‘মণিরামপুরে এতদিন আওয়ামী লীগের যে এলোমেলো অবস্থা ছিল সেটা দূর করে সব নেতা-কর্মীকে ঐক্যবদ্ধ করে নৌকার পক্ষে গণজোয়ার সৃষ্টি করতে হবে। দলের তৃণমূল পর্যায়ের নেতা-কর্মীদের জাগিয়ে তুলে আমি এই মণিরামপুরে নৌকাকে বিজয়ী করে শেখ হাসিনাকে উপহার দিতে চাই। দল যাকে মনোনয়ন দেবেন তার হয়ে কাজ করে নৌকাকে বিজয়ী করতে হবে। সেই ক্ষেত্রে আপনাদের ঐক্যবদ্ধ সহেযোগিতা দরকার।’
ফারুক বলেন, ‘এতদিন যারা দলের মধ্যে গ্রæপিং সৃষ্টি করেছেন তাদেরকে প্রতিহত করতে হবে। মণিরামপুরে আর কোনো ভাইয়ের রাজনীতি চলতে দেওয়া হবে না। কেউ আর ভাইয়ের পক্ষে স্লোগান দিতে পারবেন না।’
দলের সাধারণ সম্পাদকের দায়িত্ব পাওয়ার পর বুধবার সন্ধ্যার আগে খোলা জিপে চড়ে হাজারো নেতাকর্মীকে সঙ্গে নিয়ে মণিরামপুরে আসেন ফারুক। মণিরামপুরে ফিরেই তিনি পিতা মরহুম গোলাম মোস্তফার কবর জেয়ারত করেন। এরপর উপজেলা আওয়ামী লীগ কার্যালয়ে এলে দলের বিভিন্ন অঙ্গ সংগঠনের নেতাকর্মীরা তাকে ফুলেল শুভেচ্ছা জানান। পরে কার্যালয়ের সামনে বঙ্গবন্ধুর অস্থায়ী প্রতিকৃতিতে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন তিনি।
এর আগে বুধবার বিকেল পৌনে চারটার দিকে ঢাকা থেকে যশোর বিমানবন্দরে পৌঁছান প্রভাষক ফারুক হোসেন। বিমানবন্দরে তাকে ফুল দিয়ে বরণ করে নেন দলের নেতাকর্মীরা। বিমানবন্দর থেকে ফেরার পথে তিনি যশোরে বঙ্গবন্ধুর ম্যুরালে শ্রদ্ধা জানান। তারপর ৮০টি মাইক্রোবাস ও কার এবং প্রায় ৭০০ মোটরসাইকেলের শোভাযাত্রা নিয়ে খোলা জিপে চড়ে মণিরামপুরে পৌঁছান ফারুক হোসেন। এসময় স্থানীয় সংসদ সদস্য স্বপন ভট্টাচার্য্য, উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান নাজমা খানম, থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোকাররম হোসেন, জি এম মজিদ, চেয়ারম্যান মুজিবর রহমান, মনিরুজ্জামান মনি, আবুল হোসেন, আব্দুল হামিদ, যুবলীগ ও ছাত্রলীগসহ আওয়ামী লীগের অঙ্গ সংগঠনের নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।
প্রভাষক ফারুক হোসেনের বাবা মণিরামপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের প্রয়াত সাধারণ সম্পাদক গোলাম মোস্তফার মৃত্যুর পর দীর্ঘ দুই বছর দলের এই পদটি খালি ছিল। গত শনিবার ওই পদে কেন্দ্রীয়ভাবে ফারুক হোসেনের নাম ঘোষণা করা হয়।

আরও পড়ুন