যশোরে মোশারেফ চেয়ারম্যান খুনে আফজাল কারাগারে

আপডেট: 02:16:01 22/10/2017



img
img

স্টাফ রিপোর্টার : যশোর জেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ও সদর উপজেলার ইছালী ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আফজাল হোসেনকে কারাগারে পাঠিয়েছেন আদালত।
আজ সকালে আদালতে জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট বুলবুল ইসলামের আদালতে তিনি আত্মসমর্পণ করে জামিনের আবেদন করেন। বিচারক আবেদন নামঞ্জুর করে তাকে জেলহাজতে পাঠানোর নির্দেশ দেন।
আফজাল ওই ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান মোশারেফ হোসেন হত্যা মামলার আসামি। ২০১৫ সালের ২৪ ফেব্রুয়ারি দুর্বৃত্তরা মোশারেফকে গুলি করে হত্যা করেছিল।
মামলার এজাহারে বলা হয়, ওই দিন সকাল সোয়া ১০টার দিকে চেয়ারম্যান মোশারেফ যশোর শহরের কাজীপাড়া কাঁঠালতলা এলাকার বাড়ি থেকে মোটরসাইকেলযোগে ইছালী ইউনিয়ন পরিষদ কার্যালয়ে যাচ্ছিলেন। পথে যশোর-মাগুরা সড়কের পাঁচবাড়িয়ায় সিনজেনটা কোম্পানির ডিপোর সামনে পৌঁছুলে অপরিচিত সন্ত্রাসীরা তাকে গুলি করে হত্যা করে।
এ ঘটনায় পরের দিন নিহতের বড় ভাই মুক্তিযোদ্ধা আতিয়ার রহমান বাদী হয়ে অজ্ঞাতনামা আসামিদের বিরুদ্ধে থানায় হত্যা মামলা করেন। মামলাটি এক পর্যায়ে তদন্তের দায়িত্ব পায় সিআইডি। তদন্ত শেষে সিআইডির পরিদর্শক (ওসি) আমিনুল ইসলাম জেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আফজাল হোসেনসহ ১৯ জনকে অভিযুক্ত করে গতমাসে আদালতে চার্জশিট (অভিযোগপত্র) দাখিল করেন। হত্যা মামলায় অভিযুক্ত হওয়ায় গত ২৮ সেপ্টেম্বর স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয় আফজালকে ইউপি চেয়ারম্যান পদ থেকে সাময়িক বহিষ্কার (সাসপেন্ড) করে পরিপত্র জারি করে।
চলতি মাসে মোশারেফ হত্যা মামলার আসামিদের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করেন আদালত। এর পর আলোচিত মামলাটির অন্যতম আসামি আওয়ামী লীগ নেতা আফজাল হোসেন আত্মগোপন করেন। আজ সকালে তিনি আইনজীবী ও দলীয় নেতাকর্মী পরিবেষ্টিত হয়ে আদালতে আসেন আত্মসমর্পণ করতে।

আরও পড়ুন