বিনম্র শ্রদ্ধায় স্মরণ শহীদ বুদ্ধিজীবীদের

আপডেট: 12:22:39 15/12/2017



img
img

সুবর্ণভূমি ডেস্ক : শহীদ বুদ্ধিজীবী দিবসে জাতি শ্রদ্ধার সঙ্গে স্মরণ করেছে তার শ্রেষ্ঠ সন্তানদের। রাজধানীসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে পালিত হয়েছে বেদনাবিধুর এই দিনটি।
ঢাকা : বৃহস্পতিবার সকাল সাতটা থেকেই জাতির শ্রেষ্ঠ সন্তানদের শ্রদ্ধা জানাতে জনতার ঢল নামে রায়ের বাজার বধ্যভূমিতে। সব বয়সের, সব শ্রেণি-পেশার মানুষ বধ্যভূমি স্মৃতিসৌধের বেদীতে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানায় জাতির শ্রেষ্ঠ সন্তানদের।
পাকিস্তানি হানাদার বাহিনী ও তাদের দোসররা ১৯৭১ সালের ১৪ ডিসেম্বর পরিকল্পিতভাবে বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক, চিকিৎসক, শিল্পী, লেখক, সাংবাদিকসহ বহু খ্যাতিমান বাঙালিকে বাসা থেকে তুলে নিয়ে হত্যা করে।
বাংলাদেশের স্বাধীনতা যুদ্ধে নিজেদের পরাজয় নিশ্চিত জেনেই পাকিস্তানি বাহিনী ওই নিধনযজ্ঞ চালায়; তাদের উদ্দেশ্য ছিল স্বাধীনতার পর যেন বাংলাদেশ মাথা উঁচু করে দাঁড়াতে না পারে।
পাকিস্তানি বাহিনীর আত্মসমর্পণের দুদিন আগে বুদ্ধিজীবী হত্যায় প্রত্যক্ষ সহযোগিতা করে রাজাকার, আলবদর ও আল শামস বাহিনীর সদস্যরা।
নিষ্ঠুর নির্যাতনের চিহ্নসহ জাতির মেধাবী সন্তানদের লাশ পাওয়া যায় মিরপুর ও রায়েরবাজার এলাকায়। পরে তা বধ্যভূমি হিসেবে পরিচিত হয়ে ওঠে।
সেই স্মৃতির ভূমিতে শ্রদ্ধা জানাতে অনেকেই এসেছেন পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে নিয়ে। বিভিন্ন রাজনৈতিক, সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠনের পাশাপাশি বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীদের পদচারণায় সকাল থেকেই মুখর হয়ে ওঠে স্মৃতিসৌধ প্রাঙ্গণ।

যশোর : শহীদ বুদ্ধিজীবী দিবসে যশোরের চাঁচড়া বধ্যভূমিতে শ্রদ্ধাঞ্জলি জানিয়েছে জেলা প্রশাসনসহ বিভিন্ন সংগঠন। সকাল আটটায় শুরুতে জেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার রাজেক আহমেদের নেতৃত্বে মুক্তিযোদ্ধা সংসদ, যশোরের জেলা প্রশাসক মো. আশরাফ উদ্দিন, পুলিশ সুপার আনিসুর রহমান, বিএনপির জাতীয় স্থায়ী কমিটির সদস্য তরিকুল ইসলামের নেতৃত্বে জেলা বিএনপি, জেলা জাসদ, বিভিন্ন পেশাজীবী , সাংস্কৃতিক ও শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বধ্যভূমিতে শ্রদ্ধাঞ্জলি অর্পণ করে।