দ্বিতীয় স্ত্রীকেও হত্যার অভিযোগ

আপডেট: 06:41:08 20/03/2018



img

মাগুরা প্রতিনিধি : সদর উপজেলার বড়ঘড়ি গ্রামে রেবা খাতুন (৩৫) নামে এক গৃহবধূকে হত্যার অভিযোগ উঠেছে তার স্বামী গোলাম মোল্লার বিরুদ্ধে।
স্ত্রীকে হত্যার পর গলায় ফাঁস দিয়ে ‘আত্মহত্যা’ বলে চালিয়ে দেওয়ার চেষ্টা করছেন বলে অভিযোগ ওই গৃববধূর স্বজনদের। পুলিশ অভিযুক্ত গোলাম মোল্লাকে আটক করেছে।
মামা কামরুল বিশ্বাস অভিযোগ করেন, তার ভাগ্নি রেবা গোলাম মোল্লার দ্বিতীয় স্ত্রী। বিয়ের পর থেকে রেবার ওপর তার স্বামী গোলাম মোল্লা অত্যাচার নির্যাতন চালিয়ে আসছে। তারা বহুবার এসে শালিস-মীমাংসা করে কোনো মতে সংসার টিকিয়ে রেখেছিলেন। ইতিপূর্বে গোলাম মোল্লা তার প্রথম স্ত্রী ও এক ছেলেসন্তানকে হত্যা করেছে বলে অভিযোগ কামরুল বিশ্বাসের। সর্বশেষ মঙ্গলবার তার ভাগ্নিকে হত্যা করে গলায় রশি দিয়ে ঘরের আড়ার সঙ্গে ঝুলিয়ে ‘আত্মহত্যা’ বলে চালিয়ে দেওয়ার চেষ্টা করছে। তিনি এ ঘটনার সুষ্ঠু তদন্ত বিচার দাবি করেন।
সদর থানার ওসি ইলিয়াস হোসেন বলেন, নিহতের স্বজনদের অভিযোগের ভিত্তিতে তারা গোলাম মোল্লাকে আটক করেছেন। ময়নাতদন্ত রিপোর্টের ওপর ভিত্তি করে পরবর্তী আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

আরও পড়ুন