মাগুরায় নিরক্ষরমুক্ত হবে ৫৪ হাজার মানুষ

আপডেট: 08:10:39 16/09/2018



img

মাগুরা প্রতিনিধি : মাগুরা জেলার শ্রীপুর, মহম্মদপুর, শালিখা- এ তিন উপজেলার ৫৪ হাজার নিরক্ষর ব্যক্তিকে সাক্ষর জ্ঞান দেওয়া হবে। প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের উপ-আনুষ্ঠানিক শিক্ষা ব্যুরোর মৌলিক সাক্ষরতা প্রকল্পের আওতায় এই কার্যক্রম বাস্তবায়িত হবে।
এই কাজে নিয়োজিত ২০ জন মাস্টার ট্রেইনারের পাঁচ দিনব্যাপী প্রশিক্ষণ কোর্সের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে এ তথ্য দেওয়া হয়।
রোববার মাগুরা প্রাইমারি টিচার্স ট্রেনিং ইনস্টিটিউট- পিটিআই মিলনায়তনে এই প্রশিক্ষণ কর্মসূচি উদ্বোধন করা হয়। এতে প্রধান অতিথি ছিলেন মাগুরার অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) আক্তারুন্নাহার।
পিটিআই সুপারিনটেন্ডেন্ট বাদলচন্দ্র বিশ্বাসের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে অন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন উপ-আনুষ্ঠানিক শিক্ষা ব্যুরোর সহকারী পরিচালক সরোজকুমার দাস এবং সহযোগী সংস্থা ইসার্ডোর নির্বাহী পরিচালক আবু ইমাম মোহাম্মদ বাকের।
মাগুরায় এই প্রকল্প বাস্তবায়নকারী সংস্থার অন্যতম ইসার্ডোর নির্বাহী পরিচালক জানান, ১৯৯৮ সালে মাগুরায় ‘বিকশিত মাগুরা’ নামে নয় মাসব্যাপী সাক্ষরতা অভিযান বাস্তবায়ন শেষে এটিকে বাংলাদেশের প্রথম নিরক্ষরমুক্ত জেলা হিসেবে ঘোষণা করা হয়। তার পর থেকে মাগুরায় মৌলিক সাক্ষরতা কার্যক্রম বন্ধ ছিল। দীর্ঘ এই ২০ বছরে জেলায় নতুন করে প্রায় ৩০ শতাংশ মানুষ নিরক্ষর হয়ে পড়েছে। যাদের জন্য এই প্রকল্প ইতিবাচক ফল বয়ে আনবে। এই কার্যক্রম বাস্তবায়নের জন্য ইতিমধ্যে এক হাজার ৮০০ জন শিক্ষক, ৪৫ জন সুপারভাইজার ও ২০ জন মাস্টার ট্রেইনার নিয়োগ দেওয়া হয়েছে। প্রকল্পের মেয়াদ ধরা হয়েছে ছয় মাস। প্রকল্পে শিক্ষার্থীর বয়স ধরা হয়েছে ১৫ থেকে ৪৫ বছর।
বেসরকারি সংস্থা ইসার্ডো ও রোভা ফাউন্ডেশন মাগুরায় এ কার্যক্রম বাস্তাবায়ন করছে।

আরও পড়ুন