মাগুরায় প্রশিক্ষণার্থী শিক্ষকরা আন্দোলনে

আপডেট: 02:42:07 23/04/2018



img
img

মাগুরা প্রতিনিধি : একটি বেসরকারি ব্যাংকে অ্যাকাউন্ট করতে রাজি না হওয়ায় বহিরাগত এক প্রাইমারি শিক্ষক কর্তৃক মাগুরা প্রাইমারি ট্রেনিং ইনস্টিটিউটে প্রশিক্ষণরত অপর এক শিক্ষক প্রহৃত হয়েছেন।
এ ঘটনার প্রতিবাদে শহরের সরকারি ওই ট্রেনিং ইনস্টিটিউটের প্রশিক্ষণরত দুই শতাধিক সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক রাস্তায় নেমে মানববন্ধন, মিছিলসহ জেলা প্রশাসক ও পুলিশ সুপার বারাবর স্বারকলিপি প্রদান করেন।
ভুক্তভোগী শিক্ষক জাহাঙ্গীর আলমসহ অন্যরা জানান, রোববার সকালে বহিরাগত শিক্ষক আব্দুল মতিন চাঁদ মাগুরা পিটিআইয়ের শিক্ষকদের ত্রিমাসিক ভাতা গ্রহণের জন্য একটি বেসরকারি ব্যাংকে অ্যাকাউন্ট খোলার পরমর্শ দেন। শিক্ষকরা এই ভাতা তিন মাস অন্তর সুপারিনটেন্ডেন্টের কাছ থেকে নগদ গ্রহণ করে থাকেন। বেসরকারি ব্যাংকের অ্যাকাউন্টে টাকা কর্তনের নিয়ম থাকায় শিক্ষক জাহাঙ্গীর আলমসহ অন্যরা এ ব্যাপারে অনাগ্রহ প্রকাশ করেন। এতে ক্ষুব্ধ হয়ে রোববার সকালে অভিযুক্ত মহম্মদপুরের ঘুল্লিয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক আব্দুল মতিন চাঁদ মাগুরা পিটিআই ক্যাম্পাসে ঢুকে জাহাঙ্গীর আলমকে প্রকাশ্যে মারপিট করে। বিষয়টি শিক্ষরা পিটিআই সুপারকে জানালে তিনি বোববার বিকেলের মধ্যে সমাধানের আশ্বাস দেন।
কিন্তু নির্ধারিত সময়ে সমাধান না হওয়ায় আজ সোমবার সকালে তারা জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের সামনে মানববন্ধনসহ জেলা প্রশাসক ও পুলিশ সুপারের কার্যালয়ে স্মারকলিপি প্রদান করেন।
পিটিআইয়ের সুপার বাদলচন্দ্র বিশ্বাস বলেন, তিনি বিষয়টি সমাধানের চেষ্টা করছিলেন। রোববার বিকেলে উভয় পক্ষকে ডাকা হয়েছিল। কিন্তু একপক্ষ না আসায় তিনি সমাধান করতে পারেননি।
অতিরিক্ত পুলিশ সুপার প্রশিক্ষণার্থী শিক্ষার্থীদের নিরাপত্তা ও অভিযুক্তর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণের আশ্বাস দিলে তারা পিটিআই ক্যাম্পাসে ফিরে যান।

আরও পড়ুন