ছাত্রীকে পিটিয়ে আহত করলেন শিক্ষিকা

আপডেট: 08:19:52 15/01/2018



img

সাতক্ষীরা প্রতিনিধি : অনুমতি ছাড়া বাইরে যাওয়ায় তৃতীয় শ্রেণির এক ছাত্রীকে পিটিয়ে আহত করার অভিযোগ উঠেছে শিক্ষকের বিরুদ্ধে।
আহত স্কুলছাত্রীর নাম তমা আক্তার (৭)। সে দীঘলারাইট সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের তৃতীয় শ্রেনীর ছাত্রী ও একই গ্রামের আলমগীর হোসেনের মেয়ে।
বাবা আলমগীর হোসেন সাতক্ষীরা প্রেসক্লাবে এসে অভিযোগ করেন, ২০১৭ সালে দ্বিতীয় শ্রেণির বার্ষিক পরীক্ষা চলাকালে সহকারী শিক্ষক রেশমা খাতুন এক ছাত্রীর খাতায় লিখে দেন। বিয়ষটি প্রধান শিক্ষক আব্দুল মাজেদকে অবহিত করে তার মেয়ে তমা। এর পর থেকে এই শিক্ষক তমার ওপর ক্ষিপ্ত হয়। চলতি বছরের জানুয়ারিতে তৃতীয় শ্রেণির নতুন ক্লাস শুরু হলে বিভিন্ন অজুহাতে তমাকে গত ১৫ দিনে দুই বার পিটিয়ে আহত করেছেন শিক্ষক রেশমা খাতুন।
তিনি দাবি করেন, সোমবার সকালে অনুমতি না নিয়ে তমা ক্লাসের বাইরে যাওয়ায় বেত দিয়ে হাতে-পিঠে মেরে গুরুতর আহত করেন শিক্ষক রেশমা। পরে স্কুল থেকে তমাকে উদ্ধার করে স্থানীয়ভাবে চিকিৎসা দেওয়া হয়।
জানতে চাইলে প্রধান শিক্ষক আব্দুল মাজেদ বলেন, ‘পরীক্ষার উত্তরপত্রে লিখে দেওয়ার কথা তমার বাবা আমার কাছে অভিযোগ করেছিল। তবে আজ আমি অফিসের কাজে ব্যস্ত থাকায় মারপিটের বিষয়টি জানা নেই।’
ফোন বন্ধ থাকায় অভিযুক্ত শিক্ষক রেশমা খাতুনের সঙ্গে কথা বলা সম্ভব হয়নি।

আরও পড়ুন