ভারতজুড়ে মুক্তি পাচ্ছে আলোচিত ‘পদ্মাবত’

আপডেট: 01:59:57 19/01/2018



img

সুবর্ণভূমি ডেস্ক : অবশেষে বলিউডের পরিচালক সঞ্জয় লীলা বানসালিরই জয় হলো। ভারতের বিজেপি শাসিত বিভিন্ন রাজ্য ‘পদ্মাবত’ সিনেমা নিষিদ্ধ করার ঘোষণা দিলে ক্ষুব্ধ হয়ে ছবির প্রযোজনা সংস্থা দেশটির সুপ্রিম কোর্টের দ্বারস্থ হয়। বৃহস্পতিবার সুপ্রিম কোর্টের প্রধান বিচারপতি দীপক মিশ্রর বেঞ্চ জানিয়ে দিয়েছেন, সঞ্জয় লীলার ‘পদ্মাবত’ ছবিটি ২৫ জানুয়ারি সারা ভারতে মুক্তি পাবে।
ছবিটি মুক্তি দেওয়ার ব্যাপারে আগেই অনুমতি দিয়েছে ভারতের সেন্সর বোর্ড। তাই যেসব রাজ্য প্রদর্শনের ওপর নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে, সেই আদেশও খারিজ করে দিয়েছেন সুপ্রিম কোর্ট।
মূলত, বিজেপি শাসিত গুজরাট, রাজস্থান, হিমাচল প্রদেশ, মধ্যপ্রদেশ এবং হরিয়ানায় এই ছবি মুক্তির ব্যাপারে রাজ্য নিষেধাজ্ঞা জারি করেছিল। তবে উত্তর প্রদেশ ও গোয়া ‘পদ্মাবত’ মুক্তির ব্যাপারে সবুজ সংকেত দিয়েছিল। এর আগে অবশ্য গত শনিবার রাজস্থানের চিতোরগড়ে রাজপুত করণি সেনার আহ্বানে অনুষ্ঠিত এক প্রতিবাদ সভায় ঘোষণা করা হয়, মুক্তি দেওয়া হলে ক্ষত্রিয় সমাজের এক শ নারী রাজপুত রানি পদ্মিনীর পথ অবলম্বন করে জহর ব্রত পালনের মাধ্যমে আগুনে ঝাঁপ দিয়ে আত্মহত্যা করবেন। জহর ব্রত হলো রাজপুত নারীদের আত্মসম্মান বাঁচাতে আগুনে ঝাঁপ দেওয়া অথবা বিষপান করে মৃত্যুবরণ।
‘পদ্মাবত’ ছবির প্রযোজনা সংস্থা ভায়াকমের তরফ থেকে আগেই জানানো হয়েছে, সেন্সর বোর্ডের নির্দেশ অনুযায়ী পদ্মাবতী ছবির নামই শুধু বদল করা হয়নি। গানের দৃশ্যসহ পাঁচটি পরিবর্তনের পর ছবিটি সেন্সর বোর্ডের অনুমতি পেয়েছে। ছবিটি পরিবর্তনের পর তা সেন্সর বোর্ডকে দেখিয়েই পাওয়া গেছে চূড়ান্ত অনুমতি।
রাজস্থানের মুখ্যমন্ত্রী বসুন্ধরা রাজের নির্দেশে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী গুলাবচাঁদ কাটারিয়া বলেছিলেন, রাজস্থান সরকার এই রাজ্যে ‘পদ্মাবত’ মুক্তির অনুমোদন দেবেন না। একই সুরে ভারতের হিমাচল প্রদেশের বিজেপি সরকারও জানিয়ে দিয়েছে, সে রাজ্যেও মুক্তি দেওয়া হবে না দিপীকা পাড়ুকোন ও রণবীর সিং অভিনীত এই ছবি। এরপর নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির রাজ্য গুজরাট। গুজরাটের বিজেপি দলীয় মুখ্যমন্ত্রী বিজয় রুপানি জানিয়ে দিয়েছেন, সেই রাজ্যেও মুক্তি দেওয়া হবে না ‘পদ্মাবত’। এরপরে নিষেধাজ্ঞা জারি করে হরিয়ানা সরকারও।
গত শনিবার উত্তর প্রদেশের বিজেপির যোগী আদিত্যনাথ সরকার সেই রাজ্যে এই ছবির মুক্তির ব্যাপারে সবুজ সংকেত দেন। এর আগে গত শুক্রবার গোয়ার মুখ্যমন্ত্রী মনোহর পারিকরও তার রাজ্যে ‘পদ্মাবত’ মুক্তির ব্যাপারে সায় দেন।
সূত্র : প্রথম আলো