বৃদ্ধাকে ধর্ষণের পর হত্যার অভিযোগ

আপডেট: 10:36:37 17/07/2018



img

স্টাফ রিপোর্টার : ইরাদত খানের বয়স চল্লিশের কোঠায়। বছরখানেক আগে তার বিরুদ্ধে এক শিশুকে ধর্ষণের পর হত্যার অভিযোগ ওঠে। আর এবার ৭০ বছর বয়সী এক বৃদ্ধার লাশ উদ্ধার হয়েছে ইরাদতের রান্নাঘর থেকে। স্থানীয়দের অভিযোগ, এবারও একই কাজ করেছে ইরাদত। এই অভিযোগে তাকে গণপিটুনিও দেওয়া হয়েছে। স্থানীয়দের অভিযোগ অমূলক নয় বলেই পুলিশ প্রাথমিকভাবে মনে করছে।
নিহত বৃদ্ধা মেহেরুননেছা যশোর সদর উপজেলার জগন্নাথপুর গ্রামের মো. মতলেব খানের স্ত্রী। আর আটক ইরাদত খান একই গ্রামের হাবিব খানের ছেলে।
এলাকাবাসী ও বসুন্দিয়া পুলিশ ক্যাম্পের ইনচার্জ হায়াৎ মাহমুদ জানান, সোমবার দুপুরে ইরাদত খান প্রতিবেশী মতলেব খানের স্ত্রী মেহেরুননেছাকে ভাত রান্না করার কথা বলে বাড়িতে ডেকে নেয়। এরপর বিকেল থেকে ওই বৃদ্ধাকে খুঁজে না পাওয়ায় প্রতিবেশীরা ইরাদতকে সন্দেহ করেন। স্থানীয়দের জিজ্ঞাসাবাদের মুখে সে অসংলগ্ন কথাবার্তা বলতে থাকে। এতে উত্তেজিত হয়ে জনতা তাকে মারপিট করে। মারপিটের এক পর্যায়ে সে স্বীকার করে যে, মেহেরুননেছার লাশ তাদের রান্নাঘরের প্লাস্টিকের বস্তার মধ্যে রয়েছে।
স্থানীয় লোকজন ওই প্লাস্টিকের বস্তার মধ্যে থেকে মেহেরুননেছার লাশ উদ্ধার করে। এসময় তারা বসুন্দিয়া ফাঁড়ি পুলিশকে খবর দেন। পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে ইরাদত খানকে আটক করে বসুন্দিয়া মোড়ের ডা. আব্দুল হাইয়ের কাছ থেকে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে হেফাজতে নেয়। মেহেরুননেছার লাশ তাদের বাড়িতে পুলিশ প্রহরায় রাখা হয়েছে। ময়নাতদন্তের জন্য মঙ্গলবার সকালে তা যশোর জেনারেল হাসপাতালে পাঠানো হবে বলে পুলিশ জানিয়েছে।
বৃদ্ধাকে ধর্ষণের পর হত্যা বলে স্থানীয়রা ধারণা করছেন। বসুন্দিয়া পুলিশ ক্যাম্পের ইনচার্জ হায়াৎ মাহমুদও ‘মেহেরুননেছাকে হয়তো বা ধর্ষণের পর শ্বাসরোধে হত্যা করা হয়েছে’ বলছেন।
স্থানীয়দের অভিযোগ, ইরাদত খান বছরখানেক আগে পঞ্চম শ্রেণির ছাত্রী সুরাইয়া নামে এক শিশুকে ধর্ষণের হত্যা করে। এসময় পুলিশ তাকে আটক করেছিল। কিন্তু হাইকোর্ট থেকে জামিনে বের হয় সে।
স্থানীয়দের উদ্ধৃতি দিয়ে পুলিশ কর্মকর্তা হায়াৎ মাহমুদ রাতে সুবর্ণভূমিকে জানান, ইরাদতের চরিত্র খুবই খারাপ। সে একটি শিশুকে ধর্ষণের পর হত্যায় অভিযুক্ত। এছাড়া কয়েক মাস আগেও ইরাদত একটি মেয়ের হাত ধরে টানাটানি করেছিল বলে অভিযোগ রয়েছে। এসব বিচারে ধারণা করা যেতে পারে, আজও সে ওই বৃদ্ধাকে ধর্ষণের পর হত্যা করেছে। তবে ময়নাতদন্ত রিপোর্ট পাওয়ার আগে বিষয়টি নিশ্চিত হওয়া যাবে না।

আরও পড়ুন