লোহাগড়ায় ছাত্রের হামলায় শিক্ষক হাসপাতালে

আপডেট: 08:43:15 18/09/2017



img

লোহাগড়া (নড়াইল) প্রতিনিধি : লোহাগড়া উপজেলার ইতনা স্কুল অ্যান্ড কলেজের শিক্ষক পংকজকুমার সরকারকে পিটিয়েছে ওই কলেজের এক শিক্ষার্থী।
সোমবার বিকেল পৌনে পাঁচটায় ইতনা কাজীপাড়া এলাকায় রাস্তার ওপর এ ঘটনা ঘটে। আহত শিক্ষককে লোহাগড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।
হামলাকারী দশম শ্রেণির ওই শিক্ষার্থীর নাম পারভেজ। তার বাড়ি উপজেলার করফা গ্রামে।
পংকজকুমার সরকার বলেন, ‘সোমবার দুপুর ১২টার দিকে দশম শ্রেণির কৃষিশিক্ষা ক্লাস নেওয়ার সময়ে শিক্ষার্থী পারভেজ অশোভন আচরণ করছিল। তার ধারাবাহিক বেয়াদবির কারণে ক্লাসের পরিবেশ নষ্ট হচ্ছিল। তাই তাকে একটি চড় মারি ও তিরস্কার করি। বিকেলে মোটরসাইকেলে স্ত্রীসহ বাড়ি ফেরার পথে লাঠি দিয়ে আমাকে বেধড়ক মারপিট করে সে। ঠেকাতে গিয়ে আমার স্ত্রী আরতি সরকার লাঞ্ছিত হয়েছেন।’
আরতি চরদৌলতপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক। ছুটি শেষে শিক্ষক দম্পতি মোটরসাইকেলযোগে বাড়ি ফিরছিলেন।
জানতে চাইলে অধ্যক্ষ বিশ্বনাথ চক্রবর্তী জানান, ওই ছেলেটি বখাটে। ছাত্রীদের প্রায়ই উত্ত্যক্ত করে। সে পড়াশোনা করে আসে না। অন্যদের সঙ্গে মারামারি করে। তার কারণে প্রতিষ্ঠানের পরিবেশ নষ্ট হচ্ছে।
হামলার ঘটনায় শিক্ষক পংকজকুমার সরকার লোহাগড়া থানায় একটি অভিযোগপত্র দিয়েছেন।
লোহাগড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. জাহাঙ্গীর আলম ঘটনা নিশ্চিত করেছেন।

আরও পড়ুন