কালীগঞ্জের সেই শ্মশানটি ‘দখলমুক্ত’

আপডেট: 04:04:40 16/09/2018



img

বিশেষ প্রতিনিধি, ঝিনাইদহ : অবশেষে ‘দখলমুক্ত’ হলো কাদিরকোল শ্মশানটি।
ইতিপূর্বে সীমানা নির্ধারণ করার পর শনিবার সেখানে প্রাচীর নির্মাণকাজ শুরু হয়েছে। দুপুরে এই কাজের উদ্বোধন করেন স্থানীয় সংসদ সদস্য আনোয়ারুল আজিম আনার। তিনি ওই স্থানে সীমানা প্রাচীরের পাশাপাশি একটি নাথমন্দির নির্মাণের ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে ঘোষণা দেন।
ঝিনাইদহের কালীগঞ্জ উপজেলার কাদিরকোল গ্রামে চিত্রা নদীর পাড়ে শত বছরের পুরনো শ্মশানটির কিছু জায়গা স্থানীয় এক ব্যক্তি দখল করে নিয়েছিলেন বলে অভিযোগ করা হয়। জমিটি নদীর হলেও এটা শ্মশান হিসেবেই ব্যবহার হয়ে আসছে। রেজাউল ইসলাম নামের ওই ব্যক্তি শ্মশানের বাকি আরো জায়গা দখলের চক্রান্তে লিপ্ত ছিলেন বলে হিন্দু সম্প্রদায়ের লোকেরা অভিযোগ করেন। বিষয়টি নিয়ে সুবর্ণভূমিসহ গণমাধ্যমে সংবাদ প্রকাশিত হয়। এরপর থেকে বিষয়টি নিয়ে প্রশাসনের পক্ষ থেকে তৎপরতা শুরু হয়।
শনিবার সীমানা প্রাচীর নির্মাণকাজ উদ্বোধন উপলক্ষে শ্মশানে সংক্ষিপ্ত সভা হয়। স্থানীয় সুন্দরপুর-দুর্গাপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি নীখিল দত্তের সভাপতিত্বে সভায় আলোচনা করেন সংসদ সদস্য আনোয়ারুল আজিম আনার, স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান ইলিয়াস হোসেন, পৌরসভার কাউন্সিলর আশরাফ হোসেন, হিন্দু সম্প্রদায়ের নেতা উজ্জ্বল অধিকারী, সুব্রত নন্দী প্রমুখ।

আরও পড়ুন