রমজানের আগেই টিসিবির পণ্য দক্ষিণের ১৪ জেলায়

আপডেট: 01:01:13 18/03/2017



img

খুলনা অফিস : রমজানে বাজার মূল্য স্থিতিশীল রাখতে টিসিবির খুলনার গুদামে ইতিমধ্যেই পণ্য মজুদ হতে শুরু হয়েছে। চিনি মজুদের পরিমাণ সবচেয়ে বেশি। রমজানের আগেই টিসিবি ডিলারদের মাধ্যমে দক্ষিণাঞ্চলের ১৪ জেলায় পণ্য বিক্রি শুরু করবে। এবারে রমজানের পণ্যের মধ্যে রয়েছে ছোলা, মসুরের ডাল, চিনি ও সয়াবিন তেল।
সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, রমজানে বাজার মূল্যের ঊর্ধ্বগতিরোধে টিসিবি এবার আগে-ভাগেই ব্যবস্থা নিয়েছে। এ মাসের শেষ দিকে ৩৬০ মেট্রিক টন ছোলা, ৩৩০ মেট্রিক টন মসুরের ডাল খুলনার গুদামে এসে পৌঁছাবে। ইতিমধ্যেই দেশি চিনি গুদামে মজুদ রাখা হয়েছে। এ অঞ্চলের ১৪ জেলার জন্য চাহিদাপত্র দেওয়া হয়েছে ৫শ’ মেট্রিক টন চিনি। ১৪ জেলায় ৪৮৪জন ডিলারের মাধ্যমে এ পণ্য বিক্রি হবে। জেলাগুলো হচ্ছে খুলনা, সাতক্ষীরা, বাগেরহাট, যশোর, নড়াইল, ঝিনাইদহ, কুষ্টিয়া, মেহেরপুর, চুয়াডাঙ্গা, মাগুরা, রাজবাড়ী, মাদারিপুর, শরিয়তপুর ও গোপালগঞ্জ। এসব পণ্যের মূল্য এখনও নির্ধারণ হয়নি।
২০১৬ সালে রমজানে টিসিবির স্থানীয় গুদাম থেকে ৪৮ টাকা কেজি দরে ১৪০ মেট্রিক টন চিনি, ৮৯ টাকা ৯৫ পয়সা দরে ২৯২ মেট্রিক টন মসুরের ডাল, ৭০ টাকা কেজি দরে ২৭২ মেট্রিক টন ছোলা এবং ৮০ টাকা লিটার দরে ৮০ হাজার লিটার সয়াবিন তেল বিক্রি করা হয়।
এ প্রতিষ্ঠানের স্থানীয় অফিস প্রধান মো. রবিউল মোর্শেদ জানান, মে মাসের প্রথম দিকে পণ্য বিক্রি শুরু হবে। এসএমএসের মাধ্যমে ডিলারদের কাছে পণ্যের মূল্য জানানো হবে।
তার দেওয়া তথ্য মতে, মহানগরীতে ৭টি ট্রাক এবং জেলা সদরগুলোতে দু’টি করে ভ্রাম্যমাণ ট্রাকে পণ্য বিক্রি করা হবে।
তিনি বলেন, দেশের মিলে উৎপাদিত চিনি ভোক্তাদের মধ্যে সরবরাহ করা হবে।

আরও পড়ুন