মোশাররফ হত্যামামলায় আ’লীগ নেতাসহ ১৯ জনের নামে চার্জশিট

আপডেট: 06:55:34 19/03/2017



img

স্টাফ রিপোর্টার : যশোর সদর উপজেলার ইছালী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মোশাররফ হোসেন হত্যামামলায় জেলা আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আফজাল হোসেনসহ (ইছালী ইউনিয়নের বর্তমান চেয়ারম্যান) ১৯ জনকে অভিযুক্ত করে অভিযোগপত্র জমা দিয়েছে সিআইডি পুলিশ।
সিআইডি যশোর জোনের পরিদর্শক আমিনুল ইসলাম রবিবার আদালতে এ অভিযোগপত্র জমা দেন।
২০১৫ সালের ২৪ ফেব্রুয়ারি বেলা ১১টার দিকে যশোর-মাগুরা সড়কের পাঁচবাড়িয়া এলাকায় দুর্বৃত্তরা ইছালী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মোশাররফ হোসেনকে গুলি করে হত্যা করে। এসময় তিনি একটি মোটরসাইকেলে চড়ে যশোর শহরের বাসভবন থেকে ইছালী ইউনিয়ন পরিষদ কার্যালয়ের দিকে যাচ্ছিলেন।
এ ঘটনায় নিহতের বড়ভাই মুক্তিযোদ্ধা আতিয়ার রহমান বাদী হয়ে ২৬ ফেব্রুয়ারি যশোর কোতোয়ালী থানায় অজ্ঞাতনামা সন্ত্রাসীদের নামে মামলা করেন। মামলাটি প্রথমে পুলিশ তদন্ত করলেও পরে একই বছরের ১৭ এপ্রিল তদন্তভার সিআইডির ওপর ন্যস্ত হয়।
সিআইডির তদন্তে যাদের অভিযুক্ত করা হয়েছে তারা হলেন সদর উপজেলার বাহাদুরপুর এলাকার রকিবুল হাসান ওরফে রকি, একই এলাকার ইমলাক হোসেন, উপশহর এলাকার ফয়সাল ওরফে কোকিল, বাহাদুরপুর এলাকার সাজ্জাদুল হোসেন, তালবাড়িয়া এলাকার হযরত আলী ওরফে আঁখি, রাজাপুর এলাকার এসএম আফজাল হোসেন (ইছালী ইউনিয়নের বর্তমান চেয়ারম্যান), ইছালী এলাকার আজিজুর রহমান ওরফে ডেভিড, এনায়েতপুরের খাইরুল ইসলাম, রামকৃষ্ণপুরের আশরাফুল ইসলাম ফিঙে, ইছালীর আমিনুর, একই এলাকার জালাল, তেজরোল এলাকার নবকুমার ঘোষ ওরফে লব ঘোষ, রাজাপুরের রফিক ওরফে রফিউদ্দিন সরদার ওরফে টিটো রফি ওরফে কাহার রফিক, একই এলাকার আলতাফ হোসেন, এসএমএ জব্বার, বাঘারপাড়ার কৃষ্ণনগর এলাকার আসকার আলী জোয়ার্দার, একই এলাকার সাদ্দাম হোসেন, বারান্দী মোল্লাপাড়ার আরিফুর রহমান ও জগমোহনপুর এলাকার আব্দুল মজিদ।
এদিকে, এ বিষয়ে জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি শহিদুল ইসলাম মিলনের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, ‘অভিযুক্তদের মধ্যে জেলা আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদকের নাম আসার বিষয়টি আমরা কেন্দ্রীয় কমিটিকে জানাবো। কেন্দ্র যা করার করবে।’

আরও পড়ুন