মাদকবিক্রেতা ও সেবী চারজনকে কারাদণ্ড

আপডেট: 08:44:26 07/08/2019



img

স্টাফ রিপোর্টার: যশোরে দুই নারী মাদকবিক্রেতা ও দুই মাদকসেবীকে বিভিন্ন মেয়াদে কারাদণ্ড দিয়েছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। 
নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ফারজানা জান্নাত ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট রাসনা শারমিন মিথি আজ বুধবার সন্ধ্যায় ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করেন।  
দণ্ডপ্রাপ্তরা হলেন যশোর সদর উপজেলার নতুনহাট এলাকার এলাহি গাজীর মেয়ে কহিনুর (৩০) ও একই এলাকার জহিরের স্ত্রী নাছিমা (২৮), যশোর সদরের বাউলিয়া গ্রামের রজব আলীর ছেলে সেন্টু (৫০) ও ফরিদপুর জেলার লক্ষ্মীপুর এলাকার রায়হানের ছেলে ফিরোজ (৪০)।  এদের মধ্যে প্রথম দুইজন মাদকবিক্রেতা এবং শেষোক্ত দুই জন মাদকসেবী। 
ভ্রাম্যমাণ আদালতের পেশকার শেখ জালাল উদ্দিন সুবর্ণভূমিকে বলেন, ভ্রাম্যমাণ আদালত যশোর সদরের নতুনহাট কলেজের পেছনে মেহগনি বাগানে অভিযানকালে দেখতে পান, কহিনুর ও নাছিমার কাছ থেকে গাঁজা কিনে সেন্টু ও ফিরোজ তা সেবন করছেন। 
ওইসময় নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ফারজানা জান্নাত ২০১৮ সালের মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনের ৩৬ (২১) ধারায় কহিনুরকে চার মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ড এবং দুইশ' টাকা জরিমানা, অনাদায়ে আরও ৩ দিনের কারাদণ্ড এবং নাসিমাকে ৩ মাসের দণ্ড ও ১০০ টাকা জরিমানা, অনাদায়ে আরও ৩ দিনের কারাদণ্ডাদেশ দেন।
নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ফারজানা জান্নাত একই আইনের একই ধারায় মাদকসেবী সেন্টুকে ৬ মাসের কারাদণ্ড এবং ২০০ টাকা জরিমানা, অনাদায়ে আরও ৭ দিনের কারাদণ্ড ও ফিরোজকে ৩ মাসের কারাদণ্ড ও ২০০ টাকা জরিমানা, অনাদায়ে ৭ দিনের কারাদণ্ডাদেশ দেন।
অভিযানকালে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের পরিদর্শক হেলাল উদ্দিন ভূইয়া উপস্থিত ছিলেন।

আরও পড়ুন