মসজিদের জায়গায় ঘর নির্মাণের অভিযোগ

আপডেট: 06:58:39 28/07/2019



img

স্টাফ রিপোর্টার : জমিদাতা কওসার আলী বিশ্বাস বললেন, মাদ্রাসা, মসজিদ আর এতিমখানায় জমি দান করে আমরা হয়েছি দুর্বৃত্ত, আর উড়ে এসে জুড়ে বসা এসএম লাবুয়াল হক রিপন নামে লোকটি হয়ে গেল সবকিছুর মালিক। তার অত্যাচারে অতিষ্ঠ হয়ে পড়ছে স্থানীয় লোকজন।
আজ রোববার দুপুরে সাংবাদিক সম্মেলনে যশোরের বসুন্দিয়া এলাকার বসুন্দিয়া মোড় কেন্দ্রীয় জামে মসজিদ ও হাফেজিয়া এতিমখানা কমিটির নেতৃবৃন্দ এবং জমিদাতারা এসব অভিযোগ উত্থাপন করেন।
লিখিত ও মৌখিক বক্তব্যে তারা জানান, বসুন্দিয়া মোড় এলাকায় এসএ দাগ নম্বর-১৩৪৩ এ মসজিদ. এতিমখানা ও  হাফেজিয়া দাখিল মাদ্রাসার অনুকূলে যথাক্রমে ১০, ১০ ও ৭ শতক জমি রেকর্ড হয়। উল্লিখিত জমিতে তিনটি প্রতিষ্ঠান রয়েছে। মুসল্লির সংখ্যা বৃদ্ধি পাওয়ায় সম্প্রতি মসজিদের আয়তন বৃদ্ধি ও সংস্কার কাজের লক্ষ্যে কাজ শুরু করা হয়। কিন্তু মাদ্রাসা কমিটির সভাপতি এসএম লাবুয়াল হক রিপন সম্পূর্ণ গায়ের জোরে মসজিদ ও এতিমখানার জায়গায় ঘর তৈরি করে সেখানে জলাবদ্ধতার সৃষ্টি করেছেন। আগে এই মাঠের পানি যে পাশ দিয়ে নিষ্কাশন হতো, সেখানে ঘর তৈরি করায় সামান্য বৃষ্টিতে এতিমখানা ও মসজিদের খোলা জায়গা জলাবদ্ধ হয়ে পড়ছে। এতে করে শিশুদের খেলাধুলাসহ মুসল্লিদের মসজিদে আসতে দারুণ সমস্যা হচ্ছে।
সংবাদ সম্মেলনে বলা হয়, এই জলাবদ্ধ অবস্থা নিরসনে মসজিদ কমিটির সদস্য ও কওসার আলী বিশ্বাস (জমিদাতাদের একজন) পানি নিষ্কাশনে ব্যবস্তা গ্রহণ করায় লাবুয়াল হক রিপন কোতোয়ালি থানায় একটি মিথ্যা অভিযোগ দাযের করেন। যার প্রেক্ষিতে পুলিশ তাদের হেনস্থাও করে।
সংবাদ সম্মেলনে অভিযোগ করা হয়, লাবুয়াল হক রিপন নিজেকে প্রভাবশালী সাংবাদিক পরিচয় দিয়ে স্থানীয় সাধারণ মানুষকে পুলিশ দিয়ে হয়রানিসহ তাদের কাছ থেকে অনৈতিকভাবে অর্থ আদায় করে থাকেন। তার এসব অনাচারের বিষয়ে গত ২৫ জুন যশোরের পুলিশ সুপার ও স্থানীয় বসুন্দিয়া পুলিশ ক্যাম্পের ইনচার্জকে অবহিত করা হয়। কিন্তু পুলিশ ক্যাম্পের ইনচার্জও তার অসহায়ত্বের কথা তাদের বলেছেন।
এমন অবস্থায় মসজিদ ও এতিমখানা কমিটির নেতৃবৃন্দ মুসল্লি ও এতিম শিশুদের স্বার্থে জমির সীমানা নির্ধারণপূর্বক সেখানে স্ব স্ব প্রতিষ্ঠানের কর্মকা- পরিচালনা করার জন্যে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের দৃষ্টি আকর্ষণ করেন।
সংবাদ সম্মেলনে মসজিদ কমিটির আলী আহমেদ ফারাজী, কাজী কবিরসহ স্থানীয় মুরুব্বিরা উপস্থিত ছিলেন।

আরও পড়ুন