মণিরামপুরে সিলগালা গুদাম খুলে দিলেন এসিল্যান্ড

আপডেট: 07:29:11 20/03/2017



img

মণিরামপুর (যশোর) প্রতিনিধি : মেয়াদ উত্তীর্ণ কোমল পানীয় কোকাকোলা ও স্প্রাইটের মোড়কে নতুন মেয়াদ বসানোর অভিযোগে মণিরামপুরে ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযানে সিলগালা করা শিউলী স্টোরের গুদামের তালা খুলে দিলেন নির্বাহী ম্যজিস্ট্রেট উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) লিংকন বিশ্বাস।
অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট কেএম মামুন উজ্জামানের এক আদেশের ভিত্তিতে সোমবার দুপুরে এই তালা খুলে দেয়া হয়েছে। এসময় জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর যশোরের সহকারী পরিচালক সোহেল শেখ, উপজেলা সার্ভেয়ার আব্দুল মান্নান ও গুদামের মালিকপক্ষ উপস্থিত ছিলেন।
ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর যশোরের সহকারী পরিচালক সোহেল শেখ জানান, মালিক পক্ষের আবেদন ভিত্তিতে চলতি বছরের ২৯ জানুয়ারি যশোরের অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট কেএম মামুন উজ্জামান সিলগালাকৃত গুদাম খুলে দেয়াসহ পরবর্তী ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) লিংকন বিশ্বাসকে আদেশ দেন। সেই আদেশের ভিত্তিতে গুদাম খুলে দেয়া হয়েছে। এসময় গুদামে থাকা মেয়াদ উত্তীর্ণ প্রায় এক হাজার কোমলপানীয়র বোতল, শতাধিক প্যাকেট লবন ও চিপস ধ্বংস করা হয়েছে।
প্রসঙ্গত, মেয়াদ উত্তীর্ণ কোমল পানীয় কোকাকোলা ও স্প্রাইটের বোতলের পুরনো তারিখ মুছে সেখানে নতুন তারিখ বসানোর অভিযোগে চলতি বছরের ৯ জানুয়ারি রাতে মণিরামপুর শহরের গোহাটা মসজিদ সংলগ্ন শিউলী স্টোরের মালিক পৌরএলাকার হাকোবা গ্রামের মফিজুর রহমানের বড় ছেলে আলমগীর হোসেন (২৫) ও স্প্রাইট কোম্পানির এসআর সোহেল রানাকে (২৪) এক বছর করে সাজা দেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। একইসাথে আদালত ওই কাজে ব্যবহৃত গুদামঘরটি সিলগালা করে দেন। পরবর্তীতে ওই মাসের ১৯ তারিখ গুদাম খোলার অনুমতি চেয়ে জেলা ম্যাজিস্ট্রেট বরাবর আবেদন করেন মালিকপক্ষ।

আরও পড়ুন