ভাস্কর্য সরাতে আল্টিমেটাম

আপডেট: 06:50:18 21/04/2017



img

সুবর্ণভূমি ডেস্ক : ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের আমির ও চরমোনাইয়ের পীর মুফতি সৈয়দ মুহাম্মদ রেজাউল করীম বলেছেন, ‘রমজানের আগে সুপ্রিম কোর্ট প্রাঙ্গণ থেকে গ্রিক দেবীর মূর্তি অপসারণ না হলে লাগাতার কর্মসূচি দেওয়া হবে।’
শুক্রবার জুমার নামাজের পর রাজধানীর জাতীয় মসজিদ বায়তুল মোকাররম এলাকায় দলের সমাবেশে চরমোনাই পীর এ ঘোষণা দেন। তিনি বলেন, অযাচিতভাবে কোনো ইসলামি চিন্তার সংগঠনকে যেন প্রতিক্রিয়াশীল গোষ্ঠী হিসেবে আখ্যা না দেওয়া হয়।
এ সমাবেশে কয়েক হাজার হাজার মানুষ যোগ দেন। বিকেল সাড়ে ৪টায় কর্মসূচি শেষ হয়। সমাবেশ চলাকালে পল্টন, দৈনিক বাংলা ও গুলিস্তানের আশপাশের এলাকায় যান চলাচল বন্ধ থাকে।
সমাবেশে আরো বক্তব্য দেন দলের প্রেসিডিয়াম সদস্য সৈয়দ মোসাদ্দেক বিল্লাহ আল-মাদানী, নায়েবে আমির মুফতি সৈয়দ মুহাম্মদ ফয়জুল করীম, মহাসচিব মাওলানা ইউনুছ আহমাদ, যুগ্ম মহাসচিব মাওলানা এ টি এম হেমায়েত উদ্দিন প্রমুখ।
এ সময় বক্তারা শিগগির এই ভাস্কর্য অপসারণের দাবি জানান। যারা এটি আদালতের সামনে স্থাপন করেছেন, তারা ‘কুরুচি’র প্রকাশ ঘটিয়েছেন। তাদের সরকার পরিচালনা থেকে দূরে রাখার আহ্বান জানান নেতারা।
দলটির প্রচার সম্পাদক আহমদ আবদুল কাইয়ুম জানান, ২০ এপ্রিলের মধ্যেই সুপ্রিম কোর্ট প্রাঙ্গণের ভাস্কর্য সরাতে আলটিমেটাম দিয়েছিল ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ।
পূর্বঘোষণা মোতাবেক অপসারণ না হওয়ায় ২১ এপ্রিল রাজধানীর সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে সমাবেশ করার জন্য অনুমতি চাওয়া হয়। পুলিশের অনুমতি না পাওয়ায় বায়তুল মোকাররমের সামনে সমাবেশ করা হয়েছে। সমাবেশে কোনো প্রকার ঝামেলা হয়নি। পুলিশি বিধিবিধান মেনেই সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে।
সূত্র : এনটিভি

আরও পড়ুন